kalerkantho

শনিবার । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৫ আগস্ট ২০২০ । ২৪ জিলহজ ১৪৪১

বগুড়ার শেরপুরে বলাৎকারের শিকার শিশু শিক্ষার্থী

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১১ জুলাই, ২০২০ ১৩:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বগুড়ার শেরপুরে বলাৎকারের শিকার শিশু শিক্ষার্থী

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় ঘুড়ি ওড়ানোর কথা বলে কৌশলে পাটক্ষেতে নিয়ে ছয় বছর বয়সের এক শিশু শিক্ষার্থীকে মুখ বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যার ভয় দেখিয়ে বলাৎকারের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মামলার একমাত্র আসামি বায়েজিদ হোসেন বুলুকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শেরপুর থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বায়েজিদ হোসেন বুলু শেরপুর উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের সাতাড়া গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে। 

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বলাৎকালের শিকার শিশুটি সাতাড়া গ্রামে নানার বাড়ি থেকে স্থানীয় একটি কেজি স্কুলে শিশু শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। শিশুটির নানার প্রতিবেশী বয়েজিদ হোসেন বুলু। গত ৭ জুলাই বিকেলের দিকে বায়েজিদ ঘুড়ি ওড়ানোর কথা বলে কৌশলে মাঠের ভেতর পাটক্ষেতে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে সে শিশুটির মুখ বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যার ভয় দেখিয়ে বলাৎকার করে।

বলাৎকারের শিকার শিশুটি মাঠ থেকে বাড়ি ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে তার মুখে সব ঘটনা শুনে স্বজনরা তাকে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা শুক্রবার শেরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে শুক্রবার রাতে বায়েজিদকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছেন। 

বগুড়ার শেরপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বায়েজিদ শিশুটিকে বলাৎকারের কথা স্বীকার করেছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা