kalerkantho

সোমবার  । ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ৩ আগস্ট  ২০২০। ১২ জিলহজ ১৪৪১

দুর্গাপুরে সোমেশ্বরী নদীতে বালু শ্রমিক নিখোঁজ

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

৮ জুলাই, ২০২০ ০৫:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্গাপুরে সোমেশ্বরী নদীতে বালু শ্রমিক নিখোঁজ

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে নদীর পানিতে নেমে বালু তোলার ড্রেজার মেশিনে পাইপ লাগাতে গিয়ে আবু বকর (২৫) নামক এক বালু শ্রমিক নিখোঁজ হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে সোমেশ্বরী নদীর তেরী বাজার বালু ঘাটে এ নিখোঁজের ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ আবু বকর দুর্গাপুর উপজেলার চন্ডীগড় ইউনিয়নের কেরনখলা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, বাংলা ড্রেজার দিয়ে বালু তোলা নৌকার মালিক ইসমাইল হোসেনের এখানে কাজ নেন আবু বকর। মঙ্গলবার দুপুরে খাবার খাওয়ার পর পুনরায় নদী থেকে বালু তোলার জন্য আবু বকর ড্রেজারের পাইপ নদীর তলদেশে লাগাতে গিয়ে আর পানির উপরে না আসায় অন্যান্য শ্রমিকরা বিষয়টি মালিককে জানায়।

নৌকার মালিক বিষয়টি দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিসকে জানালে তারা প্রাথমিকভাবে ঘটনাস্থলে নিখোঁজ শ্রমিককে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো সন্ধান না পেয়ে ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল তিন ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়েও উদ্ধার নিখোঁজ শ্রমিককে করতে পারেনি।

স্থানীয় বিজ্ঞ মহলের দাবি, অপিরকল্পিত বাংলা ড্রেজার দিয়ে ওইসব ইজারাদার নদী থেকে বালু উত্তোলন করে আসছে। কোন নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা করছেন না তারা। 

সম্প্রতি নদীতে নেমে চারজন ব্যক্তি নিখোঁজ হয়েছেন। তাদের কাউকেই ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার করতে পারেনি। লাশ নিখোঁজের এক দিন পর মরদেহ পানিতে ভাসতে দেখা যায়। নদীতে কাজ করতে আসা অদক্ষ শ্রমিক প্রাপ্ত ট্রেনিংয়ের অভাবে এভাবে জীবন দিতে হচ্ছে। তাঁদের কোনো লাইফ সাপোর্ট ইকুপমেন্ট নেই। কোথায় চুরা বালি আছে আর নেই সে বিষয়ে কোনো ধারণা না থাকার ফলে প্রায় সময় ঘটছে এ ধরনের দুর্ঘটনা। সে বিষয়ে ড্রেজার মালিক কিংবা ইজারাদারদের নজরদারী বাড়াতে হবে। প্রতিনিয়ত প্রশাসনের মনিটরিং তৎপরতা জোরদার করতে হবে বলেও জানান তারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা