kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৪ আগস্ট ২০২০ । ২৩ জিলহজ ১৪৪১

অস্ত্রোপচারকালে প্রসূতি মায়ের মৃত্যু, ক্লিনিক ঘেরাও

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

৭ জুলাই, ২০২০ ১৭:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অস্ত্রোপচারকালে প্রসূতি মায়ের মৃত্যু, ক্লিনিক ঘেরাও

রংপুরের মিঠাপুকুরে অস্ত্রোপচারের সময় এক প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ স্বজনেরা ক্লিনিক ঘেরাও করে ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। গতকাল সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর আজ মঙ্গলবার অভিযুক্ত রয়েল হেলথ্ সিটি হাসপাতালের সবাই পালিয়ে যায়।

প্রসূতির পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রাণীপুকুর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামের রাশেদ মন্ডল তার স্ত্রী আকলিমা বেগম সাথীকে সোমবার রাতে গড়েরমাথা নামকস্থানে রয়েল হেল্থ সিটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ জানায়, স্বাভাবিকভাবে সন্তান প্রসব সম্ভব নয়। অস্ত্রোপচার করে প্রসব করাতে হবে। তাদের কথা মত রাতে ওই প্রসূতির অস্ত্রোপচার করে কন্যা সন্তান জন্ম দেন সাথী। সন্তান জন্মের কিছুক্ষণ পর মারা যায় প্রসূতি মা সাথী। 

প্রসূতির শাশুড়ি মিনি বেগম অভিযোগ করেন, আমাদের কাউকে কিছু বুঝতে না দিয়ে রুম থেকে লাশ বের করে তড়িঘড়ি করে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেয় ক্লিনিকের লোকজন। এরপর চিকিসার নামে রংপুর  মেডিক্যালে পাঠানোর চেষ্টা চালায় তারা।

পরে মৃত্যুর ঘটনাটি জানাজানি হলে বাড়িতে খবর দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি আটক করা হয়। ঘটনার পর ক্লিনিকের লোকজন পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে নিহতের স্বজনরা ক্লিনিক ঘেরাও করে ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

আপেল নামে ওই ক্লিনিকের একজন কর্মকতা বলেন, ওই রোগী হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন। আর হাজারে দুই একটা রোগী মারা যেতেই পারে।

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। আইনগত সহায়তার জন্য সব কিছু প্রসেস করা হয়েছে। নিহতের পরিবার কোন অভিযোগ দেয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা