kalerkantho

শনিবার । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭। ৮ আগস্ট  ২০২০। ১৭ জিলহজ ১৪৪১

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, ৯ মাস পর মামলা

বোয়ালখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৭ জুলাই, ২০২০ ১৬:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, ৯ মাস পর মামলা

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে ধর্ষণের শিকার হয়ে (১৭) বছরের এক কিশোরী অন্তসত্ত্বা হওয়ার ঘটনার ১০ মাসের মাথায় মামলা হয়েছে। গত (৬ জুলাই) সোমবার রাত ২টার সময় কিশোরীর মা বাদী হয়ে ধর্ষক মিন্টু চন্দ্র (২২) কে প্রধান আসামি করে বোয়ালখালী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। কিশোরী বর্তমানে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আগামী ১৬ জুলাই তার সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে কিশোরীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

ঘটনাটি বোয়ালখালী উপজেলার পোপাদিয়া ইউনিয়নে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১০ অক্টোবর রাতে কিশোরীকে ঘরে রেখে বাবা, মা কালিপুজোয় পূজা দিতে যায়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে কিশোরীকে একা পেয়ে পার্শ্ববর্তী বাঁশি চন্দ্রের ছেলে মিন্টু চন্দ্র ঘরে ঢুকে জোর করে তাকে ধর্ষণ করে। কিশোরী চিৎকার করার চেষ্টা করলে ধর্ষণকারী মিন্টু চন্দ্র তার মুখ চেপে ধরে। পরে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে কিশোরীর শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন হতে শুরু হলে ঘটনাটি মিন্টুর পরিবারকে জানায় কিশোরীর পরিবার। 

ধর্ষণকারী মিন্টুর বাবা বাঁশি চন্দ্র কিশোরীকে ছেলের বউ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সময়ক্ষেপণ করতে থাকলে ঘটনাটি কিশোরীর পরিবার স্থানীয় চেয়ারম্যানকে জানায়। চেয়ারম্যান ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে আপস-মীমাংসা করবেন বলে আশ্বস্ত করেন। পরে দীর্ঘ সময়ক্ষেপণের কারণে কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল করিম বলেন, ঘটনার অভিযোগ পেয়ে রাত ২টার সময় মামলা রজু করা হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। আজ মঙ্গলবার সকালে কিশোরীকে জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে আপস-মীমাংসার নামে এ ধরনের ঘটনার দীর্ঘ সময়ক্ষেপণ করাটা দুঃখজনক। এসব ঘটনা  কোনোভাবে স্থানীয়ভাবে আপসযোগ্যও না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা