kalerkantho

রবিবার। ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭। ৯ আগস্ট ২০২০ । ১৮ জিলহজ ১৪৪১

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া রোগীর ৮৪ হাজার টাকার ভুয়া বিল!

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৪ জুলাই, ২০২০ ২৩:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া রোগীর ৮৪ হাজার টাকার ভুয়া বিল!

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া এক রোগীকে হাই ফ্লু ন্যাজান ক্যানেলাসহ বিভিন্ন চিকিৎসাসেবা না দিয়ে ৮৪ হাজার টাকার ‘ভুয়া বিল’ দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে চট্টগ্রাম নগরের প্রথম সারির বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালের বিরুদ্ধে। শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কেবিনে ওই রোগী মারা যাওয়ার পর ভুয়া বিলের কারণে দুপুর পৌনে ১২টা পর্যন্ত মরদেহ হাসপাতালেই ছিল। ১ লাখ ৯৩ হাজার ৯৪ টাকা বিলের মধ্যে পরে হাসপাতাল থেকে ‘ভুয়া বিল’ বাদ দিলে মরদেহ নিয়ে গেছেন স্বজনরা।

জানা যায়, গত ২৯ জুন বিকেলে শ্বাসকষ্ট নিয়ে নগরের কদমতলী বাসা থেকে সাইফুদেীল্লা খাঁন (৭০) নামে এক রোগী ওই হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের ৯০৫ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ওই রোগী মারা যান। এ সময় হাসপাতাল থেকে বিল দেওয়া হয় ১ লাখ ৯৩ হাজার ৯৪ টাকা। বিলটির বিভিন্ন খাত নিয়ে চ্যালেঞ্জ করেন মারা যাওয়া রোগীর স্বজনরা। তাদের অভিযোগ চিকিৎসাসেবা না দিয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ম্যাক্স হাসপাতাল অতিরিক্ত টাকা যোগ করে বিল করেছে।

জানতে চাইলে মারা যাওয়া ওই রোগীর শ্যালক ইয়াসিন আরাফাত রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, আমার দুলাভাইকে হাই ফ্লু ন্যাজান ক্যানেলা দেয়নি। কিন্তু বিল ধরেছে ভ্যাটসহ ৩০ হাজার টাকা। কোনো ম্যাস্ক, পিপিই না দিয়ে বিল করেছে। প্রতি ঘণ্টায় অন্য হাসপাতালে অক্সিজেন ১৬০ টাকা হলেও এখানে ৬০০ টাকা ধরেছে। আমরা প্রতিবাদ করার পর দুই দফা কমিয়ে এক লাখ ১০ হাজার টাকা করেছে কতৃপক্ষ। তারা ভুয়া বিল করেছিল। ১ লাখ ৯৩ হাজার ৯৪ টাকার মধ্যে পরে ভুয়া বিল তারা বাদ দিলে আমরা ১ লাখ ১০ হাজার টাকা দিয়ে দুপুর পৌনে ১২ টার দিকে লাশ নিয়ে যাই। তিনি বলেন, গতকাল শুক্রবার করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এখনো রিপোর্ট পায়নি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে সেবরকারি ম্যাক্স হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. লিয়াকত আলী খানের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা