kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৪ আগস্ট ২০২০ । ২৩ জিলহজ ১৪৪১

নদীভাঙন রক্ষায় কাজ করছে সরকার : পানিসম্পদ উপমন্ত্রী

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

৪ জুলাই, ২০২০ ১৯:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নদীভাঙন রক্ষায় কাজ করছে সরকার : পানিসম্পদ উপমন্ত্রী

শরীয়তপুরের নড়িয়া ও সুখীপুরের বিভিন্ন এলাকায় গরিব ও অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয় বরাদ্দকৃত নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ করা হয়েছে। আজ শনিবার নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ও ঘড়িষার ইউনিয়ন ও সখীপুরের ১০০ পরিবারকে ২০০ বান্ডেল ঢেউটিন, প্রত্যেক পরিবারকে নগদ ছয় হাজার করে ছয় লাখ টাকা বিতরণ করেছেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি।

এ ছাড়া মন্ত্রীর তহবিল থেকে তিন লাখ ২০ হাজার টাকা গরিব মানুষের মাঝে বিতরণ করেছেন তিনি। নড়িয়া ও সখীপুরের প্রতি ইউনিয়নে প্রায় ১৫ হাজার গাছ লাগানোর উদ্যাগ গ্রহণ করে এ কর্মসূচি দ্বোধন করেছেন উপমন্ত্রী।

এর আগে তিনি বলেছেন, বন্যা ও বর্ষা মৌসুমে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে নদীভাঙন রক্ষায় কাজ করছে সরকার। চলতি বর্ষা মৌসুমে যাতে সারা দেশসহ নড়িয়া উপজেলা ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পায় সেই লক্ষ্য নিয়েই সরকার কাজ করছে।

নড়িয়া উপজেলায় স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের পাশাপাশি ১১ কিলোমিটার পদ্মা নদীর ডুবোচর খনন করে স্রোতের গতি পরিবর্তন করা হয়েছে ভাঙন রোধে। নড়িয়ায় ২০১৮ সালে সাড়ে ৫ হাজার বাড়িঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়েছিল।ডানতীরে প্রায় ১১০০ কোটি টাকা এবং বামতীর রক্ষায় সাড়ে ৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রতিরক্ষা কাজ চলমান। ফলে এ বছর শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ডান তীর ও বাম তীরের একটি বাড়িও নদীগর্ভে বিলীন হবে না বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পশ্চিম) মো. হাবিবুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী (নকশা) হারুন অর রশিদ, প্রধান প্রকৌশলী (ফরিদপুর জোন) এ কে এম ওহেদুজ্জামান, প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী আব্দুল হেকিমসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অন্যান্য কর্মকর্তা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা