kalerkantho

সোমবার । ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭। ১০ আগস্ট ২০২০ । ১৯ জিলহজ ১৪৪১

বাঁচতে চায় নোবিপ্রবি'র শিক্ষার্থী সাইফ

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি   

৪ জুলাই, ২০২০ ০১:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাঁচতে চায় নোবিপ্রবি'র শিক্ষার্থী সাইফ

সাইফ উদ্দিন সাইফ। নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ইনফরমেশন সায়েন্স অ্যান্ড লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র। পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা, সাংবাদিকতা আর লেখালেখিতে যার ব্যস্ত সময় কাটত। শারীরিক অসুস্থতা হঠাৎ থামিয়ে দিয়েছে তার সেই ব্যস্ততা। 

পড়াশোনা, খেলাধুলা, লেখালেখি আর সাংবাদিকতা সবকিছু থেকেই তিনি এখন দূরে। সদা হাসিখুশি আর প্রাণবন্ত থাকা এই মেধাবী ছাত্রের এখন সময় কাটছে নানা দুশ্চিন্তা আর উৎকণ্ঠায়। দীর্ঘদিন ধরে কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি। সাইফের কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করতে প্রায় ১২ লাখ টাকা প্রয়োজন। এত টাকা তার মধ্যবিত্ত পরিবারের পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব নয়। এজন্য তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।

সাইফ কালের কণ্ঠকে জানান, গত ২৮ মার্চ তারিখ থেকে হঠাৎ করে মাথা ব্যথা, বমিসহ নানা শারীরিক অসুস্থতা দেখা দেয় তার। কিন্তু দেশব্যাপী চলমান করোনাভাইরাস দুর্যোগের কারণে গ্রাম্য ডাক্তারের কাছেই চলে তার চিকিৎসা। এরপর ল্যাবএইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষা করে তিনি জানতে পারেন তার দুটি কিডনি ইনফেকশন হয়ে প্রায় শেষ অবস্থায়। পরে নোয়াখালী থেকে ইমার্জেন্সি ঢাকার উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রখ্যাত নেপ্রোলজিস্ট ডা. ইউশা আল আনসারীর অধীনে চিকিৎসা নেন তিনি। 

সবশেষে জানানো হয়, তার কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করা আবশ্যক। দুটি কিডনিতেই সমস্যা তার। জরুরিভিত্তিতে একটি কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করতে হবে। কিডনি ট্রাসপ্লান্ট করতে তার দরকার ১২ লাখ টাকা।

সাইফের বাবা মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, আমার ছেলের কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করতে প্রায় ১২ লাখ টাকা প্রয়োজন। এত টাকা জোগাড় করা আমাদের পরিবারের পক্ষে অসম্ভব। নোবিপ্রবি প্রশাসন এবং দেশের বিত্তবানরা যদি এগিয়ে আসে তাহলে আমি আমার ছেলেকে বাঁচাতে পারব।

সাইফের সহপাঠী আহসান হাবিব বলেন, 'মধ্যবিত্ত ঘরের একজন ছেলে অত্যন্ত হাসি-খুশি ও প্রাণবন্ত ছিল সব সময়। কিন্তু হঠাৎ এত বড় দুঃসংবাদ পাব কখনোই ভাবতে পারিনি। আমি চাই আমার বন্ধু আবারও আমাদের মাঝে আগের মতোই ফিরে আসুক। এ সময়টাতে তার পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর সর্বাত্মাক চেষ্টা করছি আমরা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের কাছে আবেদন আপনারাও সাইফের পাশে থেকে সহযোগিতা করুন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা