kalerkantho

রবিবার। ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭। ৯ আগস্ট ২০২০ । ১৮ জিলহজ ১৪৪১

আফসানার মুখে ছিল কাপড় গোঁজা, গলায় ওড়না পেঁচানো

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

৩ জুলাই, ২০২০ ১২:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আফসানার মুখে ছিল কাপড় গোঁজা, গলায় ওড়না পেঁচানো

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে কচুর লতি তুলতে গিয়ে নিখোঁজের এক দিন পর সীমান্ত এলাকার ঝরনার পানির গর্ত থেকে আফসানার (১১) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শিশুটির মুখে কাপড় গোঁজা ও গলায় ওড়না পেঁচানো থাকায় হত্যা করা হয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ওই ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের খামারখালী পাড়ার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আফসানা ওই গ্রামের দিনমজুর আবু ছালেকের কনিষ্ঠ কন্যা। সে স্থানীয় একটি মাদরাসায় পড়ত বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের পাহাড়ি টিলার আশপাশে বুধবার সকালে কচুর লতি তুলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। দিনভর খুঁজে শিশুটিকে কোথাও পায়নি পরিবারের লোকজন। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সীমান্তে বিএসএফ ক্যাম্পের কাছাকাছি ঝরনার গর্তের মাঝে শিশুটির লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ রাত ৯টার দিকে লাশ উদ্ধার করে শুক্রবার সকালে নেত্রকোনা আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, পুলিশ নিখোঁজ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। তখন শিশুটির মুখে কাপড় গোঁজা ও গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, শিশুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। শিশুটির বাবা একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। অতি দ্রুত তদন্ত চলছে। ঘটনার রহস্য উদ্ঘা‌টন করে এ ন্যক্কারজনক ঘটনার সাথে সম্পৃক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা