kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৪ আগস্ট ২০২০ । ২৩ জিলহজ ১৪৪১

স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ

কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২ জুলাই, ২০২০ ১৬:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার দক্ষিণ কুনকুনিয়া গ্রামের যুবসমাজ হাজার মানুষের চলাচলের জন্যে নির্মাণ করেছে বাঁশের সাঁকো। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই সাঁকোর উদ্বোধন করেন কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদ হাসান সিদ্দিকী।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নের দক্ষিণ কুনকুনিয়া গ্রামের দেড় হাজার মানুষের চলাচলে বর্ষা মৌসুমের সবচেয়ে বড় কষ্ট ছিলো বানিয়াজান খাল। কয়েকশ বছর যাবৎ বর্ষাকালে এই গ্রামের মানুষদের উপজেলা সদরের সাথে দুই কিলোমিটার ঘুরে যোগাযোগ করতে হতো। স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদেরকেও অনেক পথ ঘুরে চলাচল করতে হয়। অনেক চেষ্টা করেও এই গুরুত্বপূর্ণ স্থানে হয়নি কোন সেতু। অবশেষে ষাট হাজার টাকা খরচ করে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে একশ বারো মিটার বাঁশের সেতু নির্মাণ করে ওই গ্রামের যুব সমাজ।

স্বেচ্ছাশ্রমের সমন্বয়কারী স্কুল শিক্ষক আনিছুর রহমান জানান, গত বছর আমরা একটি পায়ে চলা পথ পেয়েছি। কিন্তু ব্রিজ হয়নি। তাই এবার গ্রামের যুবসমাজকে নিয়ে এই সাঁকো তৈরি করা হয়েছে। আমাদের দরকার এখন একটি সেতু।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, ফেসবুকে ওদের সাঁকো নির্মাণের ছবি দেখেছি। তাই আজ এলাম ওদের এই স্বেচ্ছাশ্রমকে শ্রদ্ধা জানিয়ে পাশে দাঁড়াতে। এসে আমার খুব ভালো লেগেছে। ওদের কাজে শরিক হতে আমি ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার ঘোষণা দিচ্ছি।

এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা একেএম শাহা আলম মোল্লা জানান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে এখানে একটি ব্রিজ করার চেষ্টা করবো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাশ্রমের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য রুস্তম আলী, আব্দুল লতিফ, আব্দুর রশিদ, শহিদুল ইসলাম প্রমূখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা