kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ আষাঢ় ১৪২৭। ১৪ জুলাই ২০২০। ২২ জিলকদ ১৪৪১

থানায় জব্দ চাল দুস্থদের দিল পুলিশ

দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি   

৬ জুন, ২০২০ ২১:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



থানায় জব্দ চাল দুস্থদের দিল পুলিশ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ থানায় পুলিশি হেফাজতে মজুদ রাখা সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ২৬ বস্তা চাল ১২৫ গরিব পরিবারের সদস্যদের মাঝে বিতরণ করেছে পুলিশ। আজ দুপুরে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার সানন্দবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমান এই চাল বিতরণ করেন। 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার সানন্দবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে গত ১৮ মার্চ ডাংধরা ইউনিয়নের কাউনিয়ার চর এলাকায় স্থানীয় এক রাইসমিল থেকে ২৬টি বস্তাভর্তি (১৩০০ কেজি) চাল জব্ধ করা হয়। চালগুলো সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল। এতদিন জব্ধ করা চালের বস্তাগুলো সানন্দবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের হেফাজতে ছিল। গরিব মানুষদের জন্য বরাদ্দের সরকারি চাল কালোবাজারে মজুদ রাখার অভিযোগে ডাংধরা ইউনিয়নের এক চাউল ব্যাবসায়ীকে আসামি করে দেওয়ানগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পর থেকে আসামি পলাতক রয়েছেন।

একদিকে জব্ধ করা চালগুলো গরিব মানুষদের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণের আদেশ জারি করা হয়। আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতেই আজ শনিবার সকালে সানন্দবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে চালগুলো স্থানীয় ১২৫টি গরিব পরিবারের সদস্যদের মাঝে বিতরণ করেন পুলিশ পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমান। প্রতিজনকে ১০ কেজি করে চাল দেওয়া হয়েছে।    

সানন্দবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, জেলা পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশনায় জব্দ করা ২৬ বস্তা সরকারি চাল আড়াই মাসের অধিক সময় ধরে আমাদের হেফাজতে ছিল। চালগুলো নষ্ট হয়ে যেত। চালগুলো গরিব মানুষদের জন্যই প্রাপ্য ছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা