kalerkantho

সোমবার । ২২ আষাঢ় ১৪২৭। ৬ জুলাই ২০২০। ১৪ জিলকদ  ১৪৪১

করোনার লক্ষণ নিয়ে মৃত্যু, হাসপাতালে লাশ রেখে উধাও স্বজনরা

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

৫ জুন, ২০২০ ১২:২৮ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



করোনার লক্ষণ নিয়ে মৃত্যু, হাসপাতালে লাশ রেখে উধাও স্বজনরা

নেত্রকোণার মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার লক্ষণ নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে সন্দু মিয়া (৬০) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়ার কিছুক্ষণ পরই পালিয়ে যান স্বজনরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের লাশ হাসপাতালের পুরুষ ওয়ার্ডের ১৪ নং সিটে পড়ে রয়েছেন। নিহত সন্দু মিয়া আটপাড়া উপজেলার সুখারী ইউনিয়নের দেবাদ্বর গ্রামে মৃত রুস্তম আলীর ছেলে। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকালে এ রোগীকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে রেফার্ড করেন। কিন্তু অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়নি। পরে রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

নিহতের সৎ মা বেগম আক্তার জানান, কয়েক দিন ধরে তার জ্বর ছিল। কাল বিকালে পাতলা পায়াখানা হওয়ায় মদন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. সজিব সাইফুল্লাহ জানান, রোগীর ফুসফুসে সমস্যাজনিত কারণে শ্বাস কষ্ট ছিল। অবস্থা খারাপ দেখে তাকে ময়মনসিংহ প্রেরণ করা হয়। কিন্তু পরিবারের লোকজন তাকে নিয়ে যাননি। রাতে তিনি হাসপাতে মারা যান। নিহতের লাশ হাসপাতালেই রয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা