kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ আষাঢ় ১৪২৭। ৯ জুলাই ২০২০। ১৭ জিলকদ ১৪৪১

দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে ১৪ মৃত্যু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ জুন, ২০২০ ০৮:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে ১৪ মৃত্যু

ফাইল ফটো

বজ্রপাতে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ, হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ ও বাহুবল, জয়পুরহাট, বগুড়ার কাহালু ও শাজাহানপুর, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া, পাবনার চাটমোহর, বগুড়ার ধুনট ও কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে  শিশু, ছাত্রসহ ১৪ জন মারা গেছে। কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কমলগঞ্জ : গরু আনতে গিয়ে বজ্রপাতে নিহত মো. জুবায়ের আহমেদ বেপারী (১২) পৌরসভার উজিরপুর গ্রামের আমিন আহমদের ছেলে। সে আইডিয়াল কেজি অ্যান্ড স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র।

হবিগঞ্জ : মাছ ধরতে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে নিহতরা হলো আজমিরীগঞ্জ উপজেলার নোয়ানগর গ্রামের সমর আলীর ছেলে লিলু মিয়া (১৪), বাহুবল উপজেলার নোয়াঐ গ্রামের দরদ মিয়ার ছেলে ওড়কাইদ (৯) ও মানিকা গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে নরছ উদ্দিন (১৭)। এ ঘটনায় আহত হন দুজন।

জয়পুরহাট : নিহত কৃষক সুকোমল (৪৫) সদর উপজেলার পারুলিয়া গ্রামের মৃত রাজেন্দ্রনাথের ছেলে।

বগুড়া : কাহালুতে নিহত কৃষক মখলেছুর রহমান (৫৫) উপজেলার এরুইল গ্রামের মৃত কছিমুদ্দিনের ছেলে। এদিকে শাজাহানপুরে নিহত নুরুল ইসলাম খট্ট (৪০) খরনা ইউনিয়নের হরিণগাড়ী বাসিন্দা।

ফুলবাড়িয়া : নিহতরা হলেন আছিম-পাটুলী ইউনিয়নের জঙ্গলবাড়ী গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে মোতালেব (৬০) ও ওই ইউনিয়নের রামনগড় গ্রামের মোফাজ্জলের হোসেনের ছেলে রবিন (১৩) এবং কালাদহ ইউনিয়নের বিদ্যানন্দ পূর্বপাড়া গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে ইমরান (১৭)।

চাটমোহর : ধান কাটতে গিয়ে নিহত শরিফুল ইসলাম (২৫) উপজেলার হাণ্ডিয়াল ইউনিয়নের কনিপাড়া গ্রামের মৃত ইউসুব আলীর ছেলে।

ধুনট : নিহত কৃষক আব্দুস ছালাম সরকার (৪৫) গোপালনগর গ্রামের দেরাজ আলী সরকারের ছেলে।

কুমারখালী : নিহতরা হলেন চরসাদীপুর ইউনিয়নের ঘোষপুর গ্রামের হামিদুল্লাহ মণ্ডলের ছেলে ফারুক মণ্ডল (৩০) ও নন্দলালপুর ইউনিয়নের সদরপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত ময়েজ উদ্দিনের ছেলে শফি বিশ্বাস (৫০)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা