kalerkantho

বুধবার । ২৪ আষাঢ় ১৪২৭। ৮ জুলাই ২০২০। ১৬ জিলকদ  ১৪৪১

সৈয়দপুরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

৩ জুন, ২০২০ ২৩:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৈয়দপুরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

নীলফামারীর সৈয়দপুরে টুকটুকি রানী দাস (১৫) নামে এক কিশোরী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল (বুধবার) বিকেলে শহরের হাতিখানা এলাকার তিনমাথা  মোড়ের এ আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটে। 

জানা যায়, শহরের উল্লিখিত এলাকার ধোপা শংকর দাসের মেয়ে কিশোরী টুকটুকি। ঘটনার দিন আজ বুধবার সকলেই দুপুরের খাওয়া দাওয়া শেষে বাড়ির নিজ নিজ ঘরেই ছিলেন। কিশোরী টুকটুকিও তার ঘরেই অবস্থান করছিল। এর ফাঁকে এক সময় ওই কিশোরীর বড় ভাই রতন তাকে ডাকতে যান। কিন্তু তাঁর ঘরে দরজা বন্ধ পেয়ে বাইরে থেকে তাকে ডাকাডাকি করতে থাকেন। এতে তাঁর কোনো সাড়া শব্দ পাওয়া যাচ্ছিল না।

পরবর্তীতে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে কিশোরী টুকটুকিকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগানো দেখতে পাওয়া যায়। পরে কিশোরী টুকটুকিকে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নিচে নামানো হয়।

খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আতাউর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে কি কারণে ওই কিশোরী আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি।

এ সময় তিনি জানান, প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যা মনে হলেও সৈয়দপুর থানার অফিসার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খান বলেন, এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার লাশের ময়নাতদন্তের নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠনো হবে। ময়নাতদন্তে কিশোরী টুকটুকি মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা