kalerkantho

শনিবার । ২০ আষাঢ় ১৪২৭। ৪ জুলাই ২০২০। ১২ জিলকদ  ১৪৪১

গোবিন্দগঞ্জে এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

৩ জুন, ২০২০ ১৮:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোবিন্দগঞ্জে এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মেহেদুল ইসলাম শাশিত (৩৬) নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগে তিনজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। বুধবার উপজেলার বালুয়া বাজার বণিক সমিতির একটি ঘরে তাদের আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন তারা। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের থানায় নিয়ে যায়। 

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, গত মঙ্গলবার উপজেলার তালুককানুপুর ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামের শাহজাহান আলী প্রধান সাজুর ছেলে মেহেদুল ইসলাম শাশিত (৩৬) কে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় একই ইউনিয়নের রামনাথপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে জহুরুল ইসলাম (৩০), সুন্দইল গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে আব্দুল ওয়াদুদ (২৮) এবং পলাশবাড়ী উপজেলার দুবলাগাড়ী গ্রামের সামছুল হকের ছেলে মিঠু মন্ডল (৪০)।

ওই দিন বিকেলে পার্শ্ববর্তী পলাশবাড়ী উপজেলার ঢোলভাঙ্গা এলাকার রাস্তার পাশে গুরুতর আহত অবস্থায় পাওয়া যায় শাশিতকে। স্থানীয় লোকজন তাকে প্রথমে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, আটক তিন ব্যক্তি বাড়ি থেকে মেহেদুল ইসলাম ওরফে শাশিতকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে জখম করে সড়ক দুর্ঘটনা বলে প্রচার করে। পরদিন স্থানীয় মানুষ অভিযুক্ত তিনজনকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেরা বালুয়া বাজার বণিক সমিতির কার্যালয়ে আটকে রেখে  পুলিশে খবর দিলে থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদেরকে আটক করে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা মর্গে প্রেরণ করে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, ব্যবসায়িক লেনদেনের কারণে শাশিতকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। 

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি এ কে এম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ঘটনাস্থল পলাশবাড়ি হওয়ায় আটকৃতদের পলাশবাড়ী থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা