kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ আষাঢ় ১৪২৭। ৩ জুলাই ২০২০। ১১ জিলকদ  ১৪৪১

করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করলেন পাঁচ স্বেচ্ছাসেবী

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ জুন, ২০২০ ২৩:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করলেন পাঁচ স্বেচ্ছাসেবী

সুনামগঞ্জে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত ব্যক্তির নামাজে জানাজা ও দাফন কাফন সম্পন্ন করেছে সুনামগঞ্জের একই পরিবারের ৫ স্বেচ্ছাসেবী। ত্বাকওয়া ফাউন্ডেশনের হয়ে ওই পরিবারের চার ভাই ও তাদের ভাগ্নে জানাজা ও দাফন কাফনে অংশ নেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় তারা ওই ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করেছেন।

জানা গেছে, সোমবার দুপুরে ছাতক উপজেলার রাউলি গ্রামের ওষুধ ব্যবসায়ী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল হক করোনা আক্রান্ত হয়ে সিলেট শামসুদ্দিন হাসপাতালে মারা যান। মৃত ওই ব্যক্তির যানাজা সম্পন্ন করতে ত্বাকওয়া ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে উপজেলা প্রশাসন।

ত্বাকওয়া ফাউন্ডেশনের হয়ে সুনামগঞ্জ মদনিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল বছিরের চার সন্তান হাফিজ মাওলানা মিসবাহ উদ্দিন, হাফিজ মাওলানা হাম্মাদ আহমদ, হাফিজ মাওলানা ত্বাহা হোসাইন, হাফিজ মাওলানা খিজির আহমদ। তাদের সঙ্গে এই ফাউন্ডেশনে যুক্ত আছেন তাদের ভাগ্নে তেঘরিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আনোয়ার হোসেনের ছেলে ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় মোহাম্মদ আম্মার। এই ৫ জন সোমবার বিকেলে খবর পেয়ে রাউলি ছুটে যান। তারা করোনা আক্রান্ত মো. আব্দুল হককে গোসল করিয়ে জানাজা সম্পন্ন করে শেষে কবরস্থ করে আসেন। তাদেরকে সহযোগিতা করেন ছাতক উপজেলা প্রশাসন ও স্বেচ্ছাসেবী দল।

জানাজায় অংশ নেওয়া ত্বাকওয়া ফাউন্ডেশনের সদস্য মোহাম্মদ আম্মার বলেন, জীবনের প্রথম এমন এক রোগীর গোসল করিয়েছি। মৃত ব্যক্তির এমন পরিণতি দেখে কান্না পাচ্ছিল। আমার চার মামা ও আমি মিলে গোসল, দাফন কাফন করিয়ে এসেছি। আমাদেরকে সহযোগিতা করেছে ছাতক উপজেলা প্রশাসন ও তাদের স্বেচ্ছাসেবী দল। আমরা সুনামগঞ্জে করোনায় কেউ মারা গেলে এভাবেই দাফন কাফন করব। আজ প্রথম আমরা করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফন করে এসেছি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা