kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে ৮০০ অসহায় পেল ত্রাণ

জামালপুর প্রতিনিধি   

৩০ মে, ২০২০ ১৮:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে ৮০০ অসহায় পেল ত্রাণ

আজ শনিবার ৩০ মে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৩৯তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রাণঘাতি করোনার প্রভাবে কর্মহীন ও অসহায় ৮০০ মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে জামালপুর জেলা বিএনপি ও অঙ্গদলের নেতা-কর্মীরা। জামালপুর শহরের পৃথক দুটি স্থানে এই ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

আজ শনিবার সকালে জামালপুর শহরের ফুলবাড়িয়া ঈদগাহে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আইনজীবী মো. গোলাম নবীর সভাপতিত্বে ত্রাণ বিতরণের আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির ময়মনসিংহ বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আইনজীবী শাহ্ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন। আলোচনা শেষে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের আত্মার শান্তি কামনা ও মহামারী করোনাভাইরাসের প্রভাব থেকে মুক্তি পেতে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।  

পরে শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন অন্যান্য নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ৫০০ কর্মহীন, অসহায় প্রতিবন্ধী ও হতদরিদ্র মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন। প্রতিজনকে পাঁচ কেজি করে চাল, এক কেজি আলু, আধা লিটার তেল, আধা কেজি লবণ ও একটি করে সাবান দেওয়া হয়। জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আইনজীবী মো. আনোয়ারুল করিম শাহজাহান, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক খান দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান আহমেদ খান লোটন, শফিকুল ইসলাম খান সজিব ও সদর উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব রুহুল আমিন মিলনসহ জেলা বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ত্রাণ বিতরণে অংশ নেন।

অপরদিকে একই সময়ে জামালপুর শহরের তমালতলা এলাকায় কর্মহীন, অসহায় ও হতদরিদ্র ৩০০ জন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিরতণ করেন সাবেক স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা মো. সিরাজুল হক। ত্রাণ বিতরণের আগে সেখানে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মো. আমজাদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত আলোচনা শেষে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আত্মার শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা