kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৬ জুলাই ২০২০। ২৪ জিলকদ ১৪৪১

ডাকাতিয়ায় মিলল নিখোঁজ সেকান্দারের লাশ

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি   

৩০ মে, ২০২০ ১৭:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডাকাতিয়ায় মিলল নিখোঁজ সেকান্দারের লাশ

বৃহস্পতিবার থেকে নিখোঁজ ছিলেন সেকান্দার আলী (৬৫)। শনিবার ডাকাতিয়ায় মিলল সেই সেকান্দারের লাশ। শনিবার  বিকালে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। কারো সাথে কোন  শত্রুতা নেই এমনটা দাবী করছে সেকান্দারের পরিবার। মর্মান্তিকক ঘটনাটি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের।

জানা য়ায়, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ডাকাতিয়া নদী থেকে সেকান্দার বেপারী (৭০) নামের নিখোঁজ বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পৌর এলাকার ধেররা বিলওয়াই গ্রামের কেকাকোলা ঘাট এলাকায় ডাকাতিয়া নদীতে এদিন দুপুরে স্থানীয়রা অজ্ঞাত অর্ধ গলিত লাশ ভাসতে দেখে পুলিশ খবর দেয়। পরে থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ আবদুর রশিদের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। 

নিহত সেকান্দার বেপারী উপজেলার হাটিলা পশ্চিম ইউনিয়নের কাঁঠালী দীঘিরপাড় গ্রামের বেপারী মৃত সুজত আলী বেপারীর ছেলে। তিনি গত বৃহস্পতিবার বিকাল থেকে নিখোঁজ ছিলেন। নিখোঁজের পর থেকে তার পরিবার পরিজন বিভিন্নস্থানে খোঁজসহ মাইকিং করে আসছে।

মরদেহ উদ্ধার করার সময় মরদেহের গলায় ইট বা পাথর বোঝাই একটি ব্যাগ ঝুলানো ছিলো। ধারনা করা হচ্ছে, নিখোঁজের দিন অজ্ঞাত দূর্বত্তরা তাকে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেয়।

নিহতের ভাতিজা ইমান হোসেন বলেন, গত বৃহস্পতিবার হাজীগঞ্জ বাজারের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। তিনি এলাকায় গ্রামে গ্রামে  গিয়ে কাঁচামাল (শাক-সবজি) বিক্রি করতেন। তার কোনো শত্রু নেই। এমনকি কারো সাথে ঝগড়া-বিবাদও নেই। তার এক মেয়ে, মেয়ের জামাইসহ নাতি-নাতনি রয়েছে। মেয়ের জামাইকে ঘর জামাই রেখে তাদের সাথে বসবাস করে আসছেন সেকান্দার আলী।

হাজীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন রনি বলেন, মরদেহ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা