kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে স্কুলছাত্র নিহত

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা   

২৯ মে, ২০২০ ০৭:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে স্কুলছাত্র নিহত

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো অন্তত ১০ জন।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ইজারকান্দি এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

নিহত স্কুল ছাত্র হলো একই এলাকার মৃত জালাল মিয়ার ছেলে আইয়ুব আলী (১৬)। সে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্র। আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা আব্দুল হকের সঙ্গে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল।

এই নিয়ে বুধবার বিকেলে ইজার কান্দী এলাকায় কয়েকজন লোক জুয়া খেলতে আসে। এই সময় আইয়ুব বাধা দেয়। জুয়ারীরা ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দামের লোক। পরে সেটা আওয়ামী লীগের ওই দুই গ্রæপের মধ্যে জড়িয়ে যায়। উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আইয়ুব আলী মারা যায়। আহতদের মধ্যে আরো ৬ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আহতদের মধ্যে রাসেল, পশিদ, ফারুক, আলআমিন ও সুজনের নাম জানা গেছে।

তিনি আরো বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শর্টগানের ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এ ঘটনায় নিহতের মা আয়েশা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আব্দুল হক ও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা