kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ আষাঢ় ১৪২৭। ৭ জুলাই ২০২০। ১৫ জিলকদ  ১৪৪১

পূর্ব শত্রুতার জেরে নাঙ্গলকোটে যুবককে কুপিয়ে জখম

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

২৮ মে, ২০২০ ২১:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পূর্ব শত্রুতার জেরে নাঙ্গলকোটে যুবককে কুপিয়ে জখম

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মক্রবপুর ইউনিয়নের কনকৈইজ এলানিয়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোহাম্মদ রাসেল (২৮) নামে এক প্রবাসীর বাড়িতে হামলা করে নিজ শয়ন কক্ষে গিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে জখম করেছে তার সাবেক শ্বশুর একই গ্রামের মো. ওবায়েদ ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাসেলের ঘরে প্রবেশ করে তাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। রাসেলকে প্রথমে নাঙ্গলকোটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ও পরে অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, কনকৈইজ এলানিয়া গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে রাসেল প্রেম করে বিয়ে করে একই গ্রামের ওবায়েদের মেয়েকে। পরে পারিবারিক বনাবনি না হওয়ায় স্থানীয় সমাজপতিদের মাধ্যমে গত এক বছর পূর্বে তাদের মধ্যে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটে। 

প্রবাস থেকে দেশে আসার পর ওবায়েদ সেই প্রতিশোধ নিতে গত কয়েক মাস যাবৎ দফায় দফায় রাসেলের ওপর হামলার চেষ্টা করে। গত কয়েকদিন যাবৎ রাসেল তার তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী সঙ্গে বাড়িতে গিয়ে দেখা করে বলে ওবায়েদ অভিযোগ করে আসছে।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ গ্রামবাসী সালিস বৈঠকে বসে। পরে ওবায়েদ সালিস বৈঠকে রাসেলের ওপর হামলা করলে রাসেল ও ওবায়েদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে সমাজপতিরা একই দিন আসরের নামাজের পর পুনরায় সালিস বসার সিদ্ধান্ত করে।

কিন্তু হঠাৎ করে বিকেল আনুমানিক পৌনে ৩টার দিকে কনকৈইজ গ্রামের এয়াছিন, মুরাদ, তুশার, তুহিন ও পৌরসভার বাতুপাড়া গ্রামের এক যুবকসহ ২০-২৫ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ওবায়েদ রাসেলের বাড়িতে গিয়ে হামলা করে। এসময় রাসেল প্রাণ ভয়ে শয়ন কক্ষে গিয়ে আশ্রয় নিলে সন্ত্রাসীরা রুমে প্রবেশ করে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

আহত রাসেলের মা সালেহা বেগম বলেন, ওবায়েদের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা বাড়িতে হামলা করলে আমার ছেলে প্রাণ ভয়ে পালিয়ে তার বেডরুমে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে গিয়ে তাকে কুপিয়ে আহত করে সন্ত্রাসীরা।

এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন খন্দকার বলেন, প্রথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। পূর্ব শত্রুতার জেরেই তাকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা