kalerkantho

শুক্রবার । ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৫ জুন ২০২০। ১২ শাওয়াল ১৪৪১

চাঁদাবাজির অভিযোগ নিয়ে চ্যালেঞ্জ জানালেন এমপি সবুজ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

২৩ মে, ২০২০ ২৩:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদাবাজির অভিযোগ নিয়ে চ্যালেঞ্জ জানালেন এমপি সবুজ

চাঁদাবাজি ও দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের তথ্যকে মিথ্যা ও বানোয়াট দাবি করে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন সবুজ। সম্প্রতি এমপি সবুজ ও তার স্ত্রী নিগার সুলতানা ঝুমাকে জড়িয়ে একটি অনলাইনে সংবাদ প্রকাশ হয়। এ ব্যাপারে গত মঙ্গলবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির হিমু। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। আসামিদের কাউকে গ্রেপ্তার সম্ভব হয়নি।

প্রকাশিত প্রতিবেদন প্রসঙ্গে সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন সবুজ বলেন, ‘প্রতিবেদনটির তদন্ত দাবি করছি। প্রতিবেদনে থাকা একটি অংশ সত্য হলেও আমার বিচার হোক। আর যদি পুরোটাই সাজানো ও গুজব হয়, তাহলে দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। আমার জীবন মানুষের জন্য উৎসর্গ করা। গাজীপুর-৩ আসনের প্রত্যেকটি মানুষ আমার পরিবারের সদস্য।’

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল লতিফ শেখ বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে এমপি ইকবাল হোসেন সবুজ শ্রীপুর উপজেলাসহ গাজীপুর সদর উপজেলার মির্জাপুর, ভাওয়ালগড় ও পিরুজালী  ইউনিয়নে একজন মানুষও অভুক্ত থাকবে না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। তিনি ১৫ হাজার পরিবারে ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন। মানুষের সেবায় তিনি রাতদিন পরিশ্রম করছেন।’

আওয়ামী লীগ নেতা হুমায়ুন কবির হিমু বলেন, ‘এমপির ইমেজ ক্ষুন্ন করতে একটি মহল ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। তারই অংশ হিসেবে দুর্নীতি রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম-এ প্রকাশ করা হয়েছে ‘গাজীপুর-৩ আসনের এমপি সবুজের ত্রাণের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ, স্ত্রী ঝুমার অবৈধ সম্পদের পাহাড়’ শিরোনামের সংবাদ। কার কাছে চাঁদা দাবি, কোথায় সম্পদ তার কোনো উল্লেখ নেই সংবাদে। গুজব ছড়ানো এ প্রতিবেদনের কারণে মামলা দায়ের করেছি।’

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুজ্জামান খান বলেন, ‘এই ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়েছে। মামলায় সম্পাদক এলিয় সরকার, প্রকাশক আমিনুল ইসলাম শাহীন ও অজ্ঞাতপরিচয় প্রতিবেদককে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা