kalerkantho

বুধবার । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৭  মে ২০২০। ৩ শাওয়াল ১৪৪১

শতাধিক অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীর পাশে নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি   

২৩ মে, ২০২০ ১৯:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শতাধিক অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীর পাশে নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ

করোনার প্রকোপ আর ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের কবলে বিপর্যস্ত নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শতাধিক শিক্ষার্থীকে আর্থিক উপহার পাঠিয়েছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী শিক্ষকদের সংগঠন নোবিপ্রবি শিক্ষক পরিষদ।

আজ শনিবার (২৩ মে) অনলাইনে এক উপহার প্রদান অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের করোনা ও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের এ সহায়তা পাঠায় সংগঠনটি।

উপহার প্রদান অনুষ্ঠানে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ সভাপতি ড. মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, পূর্বেও ব্যক্তিগত জায়গা থেকে আমরা অনেকেই নিজ নিজ এলাকার অসচ্ছল মানুষ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। এই দুর্যোগকালে আমরা নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ দেশরত্ন শেখ হাসিনার মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে এই উপহার তুলে দিয়েছি। করোনা মোকাবেলায় নোবিপ্রবিয়ানের পাশে নোবিপ্রবিয়ান' এর সদস্যবৃন্দও শিক্ষকদের হয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে এই উপহার পৌঁছে দিচ্ছে। আমরা তাদেরও ধন্যবাদ জানাই। 

নোয়াখালী-৪ আসনের  সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী এমপি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের এমন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, দেশের এই ক্রান্তিকালে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। ভবিষ্যতে তিনি এই সংগঠনটির সকল শুভ উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফারুক উদ্দিন সংগঠনটির কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, সংগঠন হিসেবে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ সদা-সর্বদার জন্য জাতির পিতার চেতনা যে লালন করে এটি তারই বহিঃপ্রকাশ।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম বলেন, জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ বরাবরই মানবতার পক্ষে কাজ করে চলেছে। আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই।

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় টেলিকনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন সায়েন্স বিভাগের শিক্ষক ড. আবদুল্লাহ আল মামুনসহ সংগঠনের সিনিয়র সদস্যবৃন্দ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা