kalerkantho

রবিবার । ২১ আষাঢ় ১৪২৭। ৫ জুলাই ২০২০। ১৩ জিলকদ  ১৪৪১

গৌরীপুরে পৃথক সংঘর্ষে আহত ১৭

অভিযুক্তদের বাড়িতে হামলা, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

২২ মে, ২০২০ ০৮:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গৌরীপুরে পৃথক সংঘর্ষে আহত ১৭

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে পৃথক স্থানে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার নিহত দুই ব্যক্তির পক্ষের লোকজন ও উত্তেজিত জনতা অভিযুক্তদের বাড়িতে হামলা,লুটপাট ছাড়াও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় ওই দুই স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

স্থানীয় সুত্র ও পুলিশ জানায়, একটি ভ্যান চুরির ঘটনায় সালিশকে কেন্দ্র করে গত বুধবার ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও ইউপি মেম্বার আবুল হাসেমের সিংরাউন্দ বাজারে ব্যক্তিগত কার্যালয়ে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা কুপিয়ে গৌরীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও ইউপি মেম্বার আবুল হাসেম, মুক্তিযোদ্ধা আরশেদ আলীর পুত্র আদিল মিয়া, কেরামত আলীর পুত্র আজিজুল হক, তৈয়ব আলীর পুত্র সিপুল, কেরামত আলী, রানা আহত করে। 

আহতদের মধ্যে আদিল মিয়াকে (৪৫) হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে শাহগঞ্জ এলাকায় গত বুধবার রাত ১০টার দিকে মারা যান। আশংকাজনক অবস্থায় সিপুল মিয়া, আজিজুল হককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, নজরুল ইসলাম ও আবুল হাসেমকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত নজরুল ইসলাম জানান, দলীয় কার্যালয়ে সাটাঁনো বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিও ভাংচুর করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বাড়িতে আনার পর উত্তেজিত জনতা অভিযুক্তদের ৩টি বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

অপরদিকে পূর্ববিরোধকে কেন্দ্র করে একই ইউনিয়নের পালুহাটি গ্রামে হামলা-সংঘর্ষের ঘটনায় আব্দুল ওয়াহাব (৪২) নামে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হন। তিনি পালুহাটি গ্রামের মৃত চানফর আলীর পুত্র। 

নিহতের ভাতিজা শাকিল আহমেদ শুভ জানান, গত ১ মে নেত্রকোনা-ঈশ্বরগঞ্জ নির্মানাধীন মহাসড়কের রাস্তার পাথর ও পালুহাটি বাজারে আব্দুল ওয়াহাবের ঘর ভাঙাকে কেন্দ্র করে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। একই গ্রামের কাইয়ুম মিয়া, রতন মিয়া, মানিক মিয়া, মোঃ সাগর মিয়া, জমশেদ আলী, মোঃ বাচ্চু মিয়াসহ অপরিচিত ৪/৫ এ হামলা করে। এ হামলায় আহত আব্দুল ওয়াহাবকে গত ১৭ মে পর্যন্ত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এ অবস্থায় অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও পরে নিউরোমেডিসিন হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখান থেকে বাড়িতে আনার পর গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় মারা যান। এ খবর নিহতের পালুহাটি গ্রামে পৌঁছার পর অভিযুক্তদের ৩টি বাড়িঘর হামলা-ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে উত্তেজিত জনতা। খবর পেয়ে গৌরীপুর থানর পুলিশ ও অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখের হোসেন সিদ্দিকী জানান, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও দুটি স্থানে ৬টি ঘরে আগুন দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা