kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

গাংনীতে গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যা, স্বামী জখম

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

১৫ এপ্রিল, ২০২০ ১০:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাংনীতে গৃহবধুকে  কুপিয়ে হত্যা, স্বামী জখম

মেহেরপুরের গাংনী পৌর এলাকার পূর্বমালসাদহ গ্রামে চম্পা খাতুন (২০) নামে এক গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা। এসময় তার স্বামী জুয়েল রানাকেও (৩০) কুপিয়ে আহত করা হয়েছে।

এক পুত্র সন্তানের জননী নিহত চম্পা পূর্বমালসাদহ গ্রামের ইটভাটা শ্রমিক জুয়েল রানার স্ত্রী।মঙ্গলবার দিবাগত রাতে নিজ বাড়িতে হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জুয়েল রানার বাড়ি থেকে চিৎকারের শব্দ পেয়ে প্রতিবেশীরা দৌড়ি এগিয়ে গিয়ে বাড়ির আঙ্গিনায় চম্পার লাশ পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় বাড়ির অদূরে স্বামী জুয়েলকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন প্রতিবেশীরা। পরে তাকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ভর্তি করানো হয়।

আহত জুয়েল রানা বলেন, ‘রাতে আমার স্ত্রী বাথরুমে যেতে চাইলে আমরা স্বামী-স্ত্রী ঘরের বাইরে যাই। এসময় ওত পেতে থাকা একদল সন্ত্রাসী আমাদের উপর হামলা করে ও তাৎক্ষনিকভাবে চাঁদার দাবি করে। চাঁদার দাবি পূরণ না করায় তারা স্ত্রীকে শ্বাসরোধে ও কুপিয়ে হত্যা করে। আমি ঠেকাতে গেলে, সন্ত্রাসী আমাকে কুপিয়ে আহত করে। এ সময় প্রাণ বাঁচাতে আমি চিৎকার করলে, প্রতিবেশীরা এসে উদ্ধার করে।’

গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বুধবার লাশের ময়না তদন্তের জন্য মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হবে। কে বা কারা হত্যা করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



সাতদিনের সেরা