kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

নবীনগরে একজনের করোনা শনাক্ত, ১২ পরিবার লকডাউন

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি   

১০ এপ্রিল, ২০২০ ১৭:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নবীনগরে একজনের করোনা শনাক্ত, ১২ পরিবার লকডাউন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর এলাকার আলমনগর গ্রামের উত্তর পাড়ার বাসিন্দা শ্রমজীবী মজনু মিয়া (৬৫) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার তাকে ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আজ শুক্রবার দুপুরে এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র আতংক ছড়িয়ে পড়ে। তবে আতংক কাটাতে মজনু মিয়ার পরিবারসহ আশপাশের ১২ পরিবারের লোকজনকে প্রশাসন ১৪ দিনের জন্য লকডাউনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আলমনগর গ্রামের উত্তর পাড়ার বাসিন্দা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবদুল্লাহ আল রোমান কালের কণ্ঠকে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জানান, গ্রামের উত্তর পাড়ার আবু তালেবের ছেলে মজনু মিয়া (৬৫) একজন দিন মজুর (মাটি কাটার শ্রমিক)। গত বৃহস্পতিবার তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু আজ তার অবস্থার অবনতি হলে, তার রক্তের নমুনা পরীক্ষার পর তার শরীরে করোনারভাইরাস পজেটিভ পাওয়া যায়। পরে তাকে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মজনু মিয়া মারা গেছেন এবং আলমনগর গ্রামকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে- এমন সংবাদ ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে আলমনগরসহ পুরো নবীনগরে প্রচন্ড আতংক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে নবীনগর থানার ওসি রনোজিত রায় ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে নবীনগর পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট শিব শংকর দাস কালের কণ্ঠকে বলেন, মজনু মিয়ার বাড়ির আশপাশের ১২টি বাড়ির প্রায় ৬০ জনকে ১৪ দিনের জন্য পুরোপুরি লকডাউনে রাখা হয়েছে। আর আলমনগর গ্রামবাসীকেও ঘর থেকে বের হতে বারণ করে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা