kalerkantho

রবিবার । ২১ আষাঢ় ১৪২৭। ৫ জুলাই ২০২০। ১৩ জিলকদ  ১৪৪১

তাড়াশে জমজমাট মাছের বাজার

তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৭ এপ্রিল, ২০২০ ১৬:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তাড়াশে জমজমাট মাছের বাজার

সারাদেশে যখন করোনাভাইরাস আতঙ্কে ঠিক সেই সময় তাড়াশে মাছের আড়তে হাজার হাজার মানুষ সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে কেনাবেচা করছে। হাটিকুমরুল বনপাড়া মহাসড়কের পাশে মহিষলুটি নামক স্থানে প্রতিদিন ভোর থেকে সকাল ৮ টা পর্যন্ত ওই মৎস্য আড়ৎ লাগছে। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ট্রাক নসিমন অটোভ্যানযোগে হাজার হাজার মানুষ মাছ বিক্রি ও কিনতে আসে। রাজশাহী বিভাগের অন্যতম বৃহৎ মাছের আড়ৎ মহিষলুটি এ অবস্থায় করোনাভাইরাস ঝুঁকিতে হাজার হাজার মানুষ।

গত ২৪ মার্চ উপজেলা প্রশাসন থেকে তাড়াশ উপজেলার সকল হাটবাজার বন্ধ করতে মাইকিং করা হয়। ২৬ মার্চ সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়। উপজেলা প্রশাসন থেকে মাইকিংয়ে বলা হয় পরর্বতী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত উপজেলার সকল হাটবাজার বন্ধ থাকবে। কিন্তু সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে তাড়াশের মৎস্য আড়ৎ জমজমাটভাবে বসে। মাছের আড়তে ঢাকা ময়মনসিংহ কুষ্টিয়া সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পাইকাররা মাছ কিনতে আসায় করোনা ভাইরাসের ভয়ে এলাকাবাসী দিশেহারা।

মাছ কিনতে আসা  ফজলু কামাল আসাদ, নিমাই চন্দ সহ একাধিক ক্রেতা বিক্রেতার সাথে কথা বলে জানা যায় আমরা করোনা বুঝিনা মাছ কিনতে হবে তাই এসেছি। স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ  ও সেনাবাহিনী গণসচেতনা সৃষ্টিতে নিরলসভাবে কাজ করলেও জনগণ করোনা সংক্রমণ ভয় উপেক্ষা করে প্রয়োজনের তাগিদে বাহিরে বের হচ্ছে।

মহিষলুটি মৎস্য আড়তের ইজারাদার আব্দুল গফুর এর সাথে কথা বলে জানা যায় লোকজন মাছ নিয়ে আসে তাদের মানা করলেও তারা মানছেনা। 

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. মো. ফারুক আহম্মদ সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন মহিষলুটি মাছের বাজারটি বন্ধ করতে উপজেলা প্রশাসন কে বলা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা