kalerkantho

বুধবার । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৭  মে ২০২০। ৩ শাওয়াল ১৪৪১

পদ্মায় স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষ

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

৪ এপ্রিল, ২০২০ ২২:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পদ্মায় স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষ

পদ্মা নদীতে শরীয়তপুর এলাকায় শনিবার দুটি স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। এতে নিহত হয়েছেন চাঁদপুরের আলআমীন দেওয়ান (২৮) নামের যুবক। তার সাথে থাকা আলআমীন হাওলাদার নিখোঁজ রয়েছেন। ভোরে সংঘটিত এ দুর্ঘটনায় আর কেউ হতাহত আছেন কিনা তা নিশ্চিত করতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা। শরীয়তপুরের সখিপুর উপজেলার পদ্মা নদীর কাচিকাটা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

সূত্র জানায়, করোনা পরিস্থিতিতে নদীপথে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ।  এ অবস্থায় চাঁদপুর ও শরীয়তপুরের বাসিন্দারা বিকল্প হিসেবে মাওয়া, মুন্সিগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জে স্পিডবোট দিয়ে যাতায়াত করে থাকেন। বেপরোয়া গতিতে স্পিডবোট চলাচলের কারণে এমন দুর্ঘটনা প্রায় ঘটছে। নিহত আলআমীন দেওয়ানের বাড়ি চাঁদপুর সদরের রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের জাহাজমারা গ্রামে। তার বাবার নাম আবুল বাশার দেওয়ান। নিখোঁজ আলআমীন হাওলাদারের বাবার নাম আব্দুল খালেক হাওলাদার।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হযরত আলী বেপারী বলেন, ‘ভোর রাতে দুই আলআমীন স্পিডবোট নিয়ে শরীয়তপুরের সখিপুরে যাচ্ছিল। পদ্মা নদীর কাচিকাটা এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা আরেকটি স্পিডবোট তাদের ধাক্কা দেয়। এতে স্পিডবোট উল্টে ঘটনাস্থলেই আলআমীন দেওয়ানের মৃত্যু হয়। সঙ্গী আলআমীন হাওলাদার নিখোঁজ।’ তাদের স্পিডবোটে অন্য যাত্রী ছিল কি না তা জানালে পারেননি চেয়ারম্যান।

চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, দুর্ঘটনার পর স্বজনরা আলআমীন দেওয়ানের লাশ উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে গিয়েছিলেন। তা জানার পর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনাস্থল যেহেতু শরীয়তপুরে তাই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সেখানে মামলা দায়ের করতে পারেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা