kalerkantho

সোমবার । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ১  জুন ২০২০। ৮ শাওয়াল ১৪৪১

জলঢাকায় নির্যাতনের শিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মমিনুর

জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

৪ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জলঢাকায় নির্যাতনের শিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মমিনুর

নীলফামারীর জলঢাকায় দেশ বিরোধী নেতা-কর্মীদের হাতে নির্যাতিত হয়েছেন জাতির এক শ্রেষ্ঠ সন্তান। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ধর্মপাল ইউনিয়নের হাজিপাড়া এলাকায়। নির্যাতনের শিকার হন বীর মুক্তিযোদ্ধা মমিনুর রহমান চৌধুরী। তিনি ওই এলাকার মৃত মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার ধর্মপাল ইউনিয়নের হাজিপাড়া গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে পৈত্রিক জমি চাষ করে আসছিল বীর মুক্তিযোদ্ধা মমিনুর রহমান।

ঘটনার দিন শনিবার সকালে সেই জমি চাষ করতে গেলে একই এলাকার চিহ্নিত স্বাধীনতাবিরোধী পরিবার সদস্য ফজলুর রহমান ফজু, কুদ্দুস, রানা ও রুবেল বাধা দেয়। বাধা দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তারা মমিনুর রহমানকে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে।

মমিনুর রহমান চৌধুরী বলেন, জ্ঞান ফিরলে দেখি আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আমাকে প্রথমে আক্রমণ করে ধর্মপাল ইউনিয়ন জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারি ফজলুর রহমান ফজু ও তার ছেলে দুবার গ্রেপ্তার হওয়া শিবির ক্যাডার রানা। পরে তার ভাই কুদ্দুস ও ভাতিজা রুবেল আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

মমিনুর রহমানের স্ত্রী জরিনা বেগম বলেন, তারা আমার স্বামীকে নির্যাতন করে দুটি গরু ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। আমি আমার স্বামীর নির্যাতনের বিচার চাই।

জলঢাকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহফুজুল হক সেনিন বলেন, তার মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে জখম হয়েছে এবং গলায় আঘাত পেয়েছে।

এ বিষয়ে জলঢাকা থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা