kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৪ জুন ২০২০। ১১ শাওয়াল ১৪৪১

'মুই ভাববারই পারনাই এমপি বাড়িত আসি খাবার দিবে'

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

৪ এপ্রিল, ২০২০ ০৮:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'মুই ভাববারই পারনাই এমপি বাড়িত আসি খাবার দিবে'

'মুই ভাববারই পারনাই এমপি মোর বাড়িত আসি খাবার দিবে। ঘুমের মানুষক ডাকি তোলো তোমরা হামাক খাবার দিলেন। আ্যঙ্কা এমপি মোর জীবনে দেকো নাই। দেশত কিবান এলা রোগ আইচে তামার ভয়ত চাওয়ালগুলা নিয়ে ঘরত শুয়ে আছিনো। ভয়ে হামরা ঘর থেকে বাইরত যাবার পারছি না। ছোয়ালগুলাও জ্বালে মারোচে। চাল, ডাল, লবণ দিয়ে হামার কয়েক দিন ভালোয় চলে যাবে।' গতকাল শুক্রবার রাতে দিনাজপুর-৬ আসনে(বিরামপুর) এমপি শিবলী সাদিকের হাত থেকে খাবার সামগ্রী পেয়ে এভাবেই কালের কণ্ঠের কাছে নিজের আবেগ প্রকাশ করলেন নিপের পাহানের স্ত্রী ললিতা মার্ডি।

মানুষেরা যখন গভীর ঘুমে তখন দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের আদিবাসী অধ্যুষিত  এলাকার মাটাল পাড়া গ্রামে বস্তায় খাবার নিয়ে হাজির হয়েছেন দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য এমপি শিবলী সাদিক। রাতের আধারে ওই গ্রামসহ কাটলা ইউনিয়নের প্রায় তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি।

জানা যায়, চলমান করোনাভাইরাসের কারণে দেশের মানুষ যখন ঘর থেকে বাহির হতে পারছে না এমন সময় দিনাজপুরের দক্ষিণাঞ্চলের (বিরামপুর, নবাবগঞ্জ, ঘোড়াঘাড় ও হাকিমপুর) চার উপজেলার ৪০০০০ হাজার অসহায় মানুষের মাঝে নিজ তহবিল থেকে খাবার সামগ্রী বিতরণ করছেন শিবলী সাদিক এমপি। খাবার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, আলু, তেল, লবণ। এ ছাড়াও ঘরবন্দি পরিবারগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় ওষুধ বিতরণ করা হবে।

এ ব্যাপারে এমপি শিবলী সাদিক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘করোনভাইরাসের কারণে কর্মহীন মানুষগুলো ঘরে বন্দি তখন তাদের করোনার চেয়েও ভয়াভহ হয় ক্ষুধা। আমি যখন খাবার নিয়ে গ্রামে যাই তখন গ্রামের মানুষগুলো অনেকেই ঘুমিয়ে থাকে। সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখে রাতের আধারে তাদের খাবারে পৌঁছে দেবার চেষ্টা করেছি।’

তিনি আরো বলেন,‘ আমি খোঁজ নিয়েছি। অনেক মানুষ আছে অভাবের কারণে তাদের চুলা জ্বলেনি। ঘরের বাইরে করোনা আর ভেতরে ক্ষুধা। অনেকের শিশুরা ছিল অভুক্ত। তাদের হাতে কিছু খাবার তুলে দিতে পেরে নিজের ভালো লাগছে। অনেক মানুষ আছে খাবার পেয়ে একটা আনন্দের হাসি সারা জীবনে মনে রাখবার মত’।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মো.খায়রুল আলম রাজু, স্থানীয় কাটলা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.ইউনুস আলী।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা