kalerkantho

রবিবার। ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৭ জুন ২০২০। ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

চিকিৎসক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাঝে ছাত্র ইউনিয়নের হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ এপ্রিল, ২০২০ ১৯:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চিকিৎসক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাঝে ছাত্র ইউনিয়নের হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মাঝে গত ১৯  মার্চ থেকে শ্রমজীবী ও শিক্ষার্থীদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রস্তুত ও বিনামূল্যে বিরতণ করে আসছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ময়মনসিংহ জেলা সংসদ। এরই মাঝে বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সহ করোনা মোকাবেলায় অন্যান্য স্বাস্থ্যপণ্য সমূহের ব্যাপক সংকট দেখা দেয় এবং পর্যাপ্ত সরকারি বরাদ্দ না থাকায় সাধারণ মানুষের পাশাপাশি বিপাকে পড়েন করোনা মোকাবেলায় কাজ করে যাওয়া ডাক্তার, নার্স, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। 

এমন পরিস্থিতিতে আজ ১লা এপ্রিল বুধবার ময়মনসিংহ জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ এ বি এম মসিউল আলমের হাতে ৪০০ ইউনিট হ্যান্ড স্যানিটাইজার তুলে দেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ময়মনসিংহ জেলা সংসদের সভাপতি আশজাদুল বোরহান তাহসিন। জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ এ বি এম মসিউল আলম ছাত্র ইউনিয়নের এই কার্যক্রম কে সাধুবাদ জানান এবং তিনি জানান দ্রুত সময়ের মধ্যেই এগুলো ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পৌঁছে যাবে এবং এতে তাদের অন্তত পনের দিনের কাজ চলবে। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্র ইউনিয়ন ময়মনসিংহ জেলা সংসদের সহ-সাধরণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ সৈকত ও কোষাধ্যক্ষ অনিক রঞ্জন বিশ্বাস। এছাড়াও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের ডাক্তারদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার পৌছে দেয়া হয় মেডিসিন বিভাগের রেজিস্টার ডাঃ মহিউদ্দিন খান মুনের হাতে এবং ১নং পুলিশ ফাঁড়ির সকল সদস্যদের জন্যও হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করা হয়। উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে ছাত্র ইউনিয়ন ময়মনসিংহ জেলা সংসদ ছয় হাজার বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রস্তুত ও বিতরণ করছে।

ছাত্র ইউনিয়ন ময়মনসিংহ জেলা সংসদের সভাপতি আশজাদুল বোরহান তাহসিন বলেন, 'দেশের যেকোনো সংকটে ছাত্র ইউনিয়ন মানুষের পাশে ছিল। আজ এ বিশ্ব সংকটেও তাই সারদেশে ছাত্র ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ কাজ করে যাচ্ছে। শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা খুব কষ্টে দিন যাপন করছে এসময় তাদের পাশে কিভাবে থাকা যায় সে চেষ্টাই আমরা করছি। আমরা বিত্তবানদের আহ্বান জানাতে চাই তারা যেন গরীব খেটে খাওয়া মানুষের পাশে থাকেন সেই সাথে অনুরোধ করছি এগুলো যেন কোন ভাবেই জনসমাগমের সৃষ্টি না করে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা