kalerkantho

শনিবার । ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩০  মে ২০২০। ৬ শাওয়াল ১৪৪১

জামালপুরে ব্রহ্মপুত্র নদে অষ্টমী স্নান ও মেলা বন্ধ

জামালপুর প্রতিনিধি   

৩১ মার্চ, ২০২০ ২২:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জামালপুরে ব্রহ্মপুত্র নদে অষ্টমী স্নান ও মেলা বন্ধ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে আগামীকাল বুধবার জামালপুরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব অষ্টমী স্নান, দয়াময়ী মন্দিরে বাসন্তী পূজা অর্চণা ও তিন দিনব্যাপী মেলা বন্ধ থাকছে। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের এই অষ্টমী স্নান উৎসবে যোগ দিতে শেরপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল ছাড়াও বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার পুণ্যার্থীর সমাগম ঘটে থাকে জামালপুরের ব্রহ্মপুত্র নদের পশ্চিম তীরে।

এ উপলক্ষে দয়াময়ী মন্দির প্রাঙ্গণে তিন দিনের মেলা হয়ে উঠে সার্বজনীন মেলা। সংসারের নিত্যপ্রয়োজনীয় তৈজসপত্র ও আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন পণ্যের পসরা বসে এই মেলায়। জামালপুরের প্রায় ৩০০ বছরের পুরনো দয়ীময়ী মন্দিরের ইতিহাসের সঙ্গে অষ্টমী স্নান, মেলা ও বাসন্তী পূজা উৎসব, পাঠাবলি বেশ উল্লেখযোগ্য উৎসব।

কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে জনসমাগম ঘটানোর ওপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকায় অষ্টমী স্নানোৎসব পালন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নেতৃবৃন্দ। তবে এদিন শহরের দয়াময়ী মন্দিরে সীমিত আকারে কিছু ধর্মীয় কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে ইতিমধ্যেই দয়ামন্দিরে ব্যানার টাঙিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জামালপুর জেলা শাখার সভাপতি প্রদীপ কুমার সোন রানু কালের কণ্ঠকে জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। তাই জনসমাগম না ঘটানোর জন্য সরকারি বিধি-নিষেধ থাকায় এবার অষ্টমী স্নান, দয়াময়ী মন্দিরে বাসন্তী পূজা, পাঠাবলি ও তিনদিনব্যাপী মেলা বন্ধ রাখা হয়েছে। এ উপলক্ষে দয়াময়ী মন্দিরেও ধর্মীয় সকল কার্যক্রম সীমিত আকারে পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা