kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৯  মে ২০২০। ৫ শাওয়াল ১৪৪১

অসম প্রেমে কিশোরীর কাণ্ড

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি   

৩১ মার্চ, ২০২০ ২১:১৯ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



অসম প্রেমে কিশোরীর কাণ্ড

দাদা সম্পর্কীয় এক ব্যক্তিকে (৫৫) বিয়ে করার জন্য ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল কিশোরী (১৩)। কিন্তু অভিভাবকরা তাতে সম্মত নন। এ অবস্থায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় স্কুলছাত্রী। চিকিৎসায় সুস্থ করে কিশোরীকে অবশেষে ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। ঘটনাটি জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার আওনা ইউনিয়নের পঞ্চাশি গ্রামের। অসম প্রেমের এ ঘটনা এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরী করেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পঞ্চাশি গ্রামের শিহাব উদ্দিনের সঙ্গে স্কুল পড়ুয়া নাতনির সম্পর্ক তৈরী হয়েছিল। শিহাব সম্পর্কে ছাত্রীর বাবার চাচা। এ বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হলে উভয় পরিবারে কলহ তৈরী হয়। স্কুলছাত্রী তার দাদাকে বিয়ে করতে চাইলে উভয় পরিবারের কেউ রাজি ছিলেন না। এতে অভিমানে স্কুছাত্রী সোমবার সকাল ১০টার দিকে নিজঘরে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

আত্মহত্যা চেষ্টার ঘটনা টের পেয়ে কিশোরীর মা প্রতিবেশিদের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে। স্থানীয় চিকিৎসক সানোয়ার হোসেন কিশোরীকে সুস্থ করে তোলেন।  অসম প্রেমের এ কাহিনী নিয়ে গ্রামে নানামুখী আলোচনা তৈরী হয়। এ পর্যায়ে মঙ্গলবার মেয়েটিকে ঢাকায় আত্মীয়ের বাসায় পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা