kalerkantho

রবিবার। ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৭ জুন ২০২০। ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

করোনা পরিস্থিতিতে জনসেবার অনন্য নজির

বাগেরহাট প্রতিনিধি   

২৯ মার্চ, ২০২০ ২৩:৩১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা পরিস্থিতিতে জনসেবার অনন্য নজির

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মানতে গিয়ে কার্যত থমকে আছে জনজীবন। কর্মহীন হয়ে পড়া দিনমজুরসহ দরিদ্র মানুষ এ অবস্থায় অসহায় বোধ করছেন। ঠিক তখনই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অসহায় মানুষের পাশে দাড়াচ্ছেন জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তারা। জনসেবার অনন্য নজির তৈরী হচ্ছে  এ করোনা পরিস্থিতিতে। এমনকি বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদকে রবিবার দেখা গেছে খাদ্য সামগ্রীর বস্তা কাঁধে নিয়ে দরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ছুটতে। অন্য প্রশাসনিক কর্মকর্তারাও অনুসরন করছেন তাকে।

সূত্র জানায়, বাগেরহাটে নিম্ন আয়ের মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে রবিবার থেকে। তালিকা তৈরীর পর সরকারিভাবে সহায়তা পৌছ দেওয়া শুরু হয়েছে। জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা চেয়ারম্যানরা বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে সহায়তা দিচ্ছেন। বাগেরহাট সদর, ফকিরহাট ও মোল্লাহাটসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিম্ন আয়ের মানুষদের হাতে খাদ্য সামগ্রীর বস্তা এবং প্যাকেট তুলে দিচ্ছেন প্রশাসনিক কর্মকর্তারা। তারই মধ্যে একপর্যায়ে গ্রামের রাস্তায় বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদকে বস্তা  কাঁধে নিয়ে ছুটতে দেখা গেছে। প্রথম পর্যায়ে নিম্ন আয়ের মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে ১০ কেজি চাল, এক কেজি ডাল,আলু, লবণ, তেল এবং সাবানসহ নানা ধরণের সামগ্রী। 
 
এদিকে বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিনের সৌজন্যে জেলার ফকিরহাট ও মোল্লাহাট উপজেলায় তিন হাজার দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। ফকিরহাটে এক হাজার ৬০০ এবং মোল্লাহাটে এক হাজার ৪০০ হতদরিদ্র পরিবারের হাতে খাদ্যো সহায়তা তুলে দেওয়া হয়। সেখানেও চাল, ডাল, তেল, আলু,লবণ,পেয়াজ,সাবানসহ বিভিন্ন সামগ্রী রয়েছে।

জেলার বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সহায়তা পৌছে দিতে দেখা গেছে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো.কামরুল ইসলাম, বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিলুর রহমান, ফকিরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন কুমার দাস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানাজ পারভীন, মোল্লাহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিনুল আলম ছানা, উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মাফফারা তাসনীন, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফিরোজুল ইসলামসহ পুলিশ ও প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের।

জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ জানান, করোনা পরিস্থিতিতে প্রথম পর্যায়ে খাদ্য সহায়তা হিসেবে বাগেরহাট জেলায় ১০০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়েছে। রবিবার থেকে সেসব সহায়তা নিম্ন আয়ের মানুষদের বাড়ি বাড়ি পৌছে দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা