kalerkantho

শনিবার । ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩০  মে ২০২০। ৬ শাওয়াল ১৪৪১

ঠাকুরগাঁওয়ে 'কৃত্রিম সংকটে' বেড়েছে সবজির দাম

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি   

২৮ মার্চ, ২০২০ ১৮:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঠাকুরগাঁওয়ে 'কৃত্রিম সংকটে' বেড়েছে সবজির দাম

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় জেলার অভ্যন্তরীণ রুটে যানবাহন বন্ধ থাকায় বাজারে বেড়েছে সবজির দাম। শনিবার সকালে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা গোবিন্দ নগর সবজি বাজার, কালিবাড়ি কাঁচাবাজার ও রোড কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে অধিকাংশ সবজির দাম গত কয়েকদিনের থেকে তুলনায় বেড়েছে ৫ থেকে ১০ টাকা।

ক্রেতাদের অভিযোগ, ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট পাইকারি বাজারে জোগানের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার কারণে সবজির দাম বেড়েছে। প্রশাসনের সঠিক নজরদারি অভাবে বাজারে এমন সিন্ডিকেট তৈরি হয়েছে। তবে ব্যবসায়ীদের দাবি, সরবরাহ কমে যাওয়ায় বাজারে কিছুটা বেড়েছে সবজির দাম।

গোবিন্দনগর সবজি বাজারের ক্রেতা নুরে আলম অভিযোগ করেন, দেশে করোনা প্রভাবে হঠাৎ করেই বেড়েছে কাঁচাসবজির দাম। গত চার দিন আগে যে লেবু কিনেছিলেন ১৫ টাকা হালি সেই লেবু এখন ৬০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। একইভাবে গত সপ্তাহের তুলনায় প্রতি কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা দাম বেড়েছে বেশির ভাগ সবজিতে। প্রতি কেজি টমেটো বিক্রি হচ্ছে প্রকারভেদে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, যা গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়। করলা ১২ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ১৫ থেকে ২০ টাকা, শসা ১০ টাকা থেকে বেড়ে ১৫টাকা, বেগুন ১৫ টাকা বেড়ে ২৫ টাকায়, ঢেড়স ৩০ টাকা থেকে বেড়ে ৪০ টাকা, রসুন ৫০ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

একই কথা জানান, কলেজপাড়া এলাকার বাসিন্দা আব্দুল করিম, শাহ পাড়া এলাকার মোমিন, ঘোষপাড়ার সুমন ঘোষ।

দাম বৃদ্ধির বিষয়ে গোবিন্দনগর সবজির বাজারের পাইকার মোহাম্মদ সোহরার্দী জানান, দেশে করোনা আতঙ্কে সবজির সরবরাহ কমেছে। গ্রাম থেকে সবজি না আসায় দাম বেড়েছে। তবে যে লেবু চারদিন আগেও ১৫ টাকা হালি বিক্রি করেছিলেন তিনি সেই লেবুই এখন ৬০ টাকায় কেন বিক্রি করছেন তার কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা