kalerkantho

রবিবার। ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৭ জুন ২০২০। ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

একদিকে কোয়ারেন্টিন, আরেকদিকে মাড়াই উৎসব

দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি   

২৮ মার্চ, ২০২০ ১৩:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একদিকে কোয়ারেন্টিন, আরেকদিকে মাড়াই উৎসব

সারা দুনিয়ার সবাই যেখানে সব কাজ ফেলে হোম কোয়ারেন্টিন আছে, সেখানে দেওয়ানগঞ্জ বাহাদুরাবাদ কান্দিরগ্রামের এক প্রান্তিক চাষি পরিবারে চলছে মেশিনে ভুট্টা মাড়াই এর মহা উৎসব। মেশিনের ভেতর কেউ ভুট্টা এনে দিচ্ছে, কেউ গ্রহণ করছে কেউ আবার সেগুলো ছড়িয়ে দিচ্ছে রোদে। ছেলে-মেয়ে-বউ-বাচ্চা নিয়ে কাজ করছে আর তার চারপাশে ছোট ছোট শিশুরা যেন বায়স্কোপ দেখছে। ধুলাবালি নাকে মুখে যাচ্ছে আর হাঁচি দিচ্ছে বাচ্চাকাচ্চারা। 

গ্রামের চাষিদের খোঁজখবর নিতে গিয়ে আজ সকালে এ দৃশ্য দেখা গেল। গ্রামের মজিবুর রহমান পুটল একখণ্ড জমিতে সে ভুট্টা চাষ করেছে। শ্রমিক নেবার টাকা নেই তাই নিজেই সপরিবারে কাজ করছিল। পাশের বাড়ির মধু মিয়ার মেশিনে ভুট্টা মাড়াই করছিল আর চারপাশে দুধের বাচ্চারা এসে দেখছিল। তার দাবি যে তার কিছুই হবে না। 'করোনাভাইরাস কি' জানতে চাইলে বলে গরিবদের কিছুই হবে না। আল্লাহ দেখে না আমরা কি অবস্থায় আছি? পেট চলবে কেমনে বছরে একবার ফসল আসে তা যদি ঘরে না তুলি সারা বছর কি খাব? 

গ্রামের চাষিদের এমন ঘটনা একটা না, প্রায় সব চাষিরা এখন এভাবেই কাজ করছে। তাদের ভেতর করোনাভাইরাসের কোনো ভয়ের লক্ষণ দেখা যায়নি। ভাইরাসঘটিত রোগ থেকে বেঁচে থাকতে যেখানে দুজন একত্রে চলাফেরা করার ওপর নিষেধাজ্ঞা চলছে সেখানে এই ঘটনা ভয়াবহ কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছে। 

জানতে চাইলে দেওয়ানগঞ্জ (ইউএইচএফপিও) আবু আহমেদ শাফি বলেন, এই ধরনের ধুলাবালি থেকে হাঁচি-কাশি হতে পারে যা শিশুদের জন্য এই সময় খুব ভয়ের কারণ। তাই সবাইকে সাবধান আর সচেতন হতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা