kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

ভৈরবে করোনা পরিস্থিতি

বিদেশফেরত নতুন করে ৪৭ জন হোম কোয়ারেন্টিনে

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৭ মার্চ, ২০২০ ০৪:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদেশফেরত নতুন করে ৪৭ জন হোম কোয়ারেন্টিনে

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ২৪ ঘণ্টায় বিদেশফেরত নতুন করে ৪৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তবে এ পর্যন্ত বিদেশফেরত ৩০৭ জনের মধ্যে ২৯২ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে এবং ১৬ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে ১৪ দিন পার করার পর তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো সিমটম দেখা না দেওয়ায় তাদেরকে নিয়ম মেনে স্বাভাবিক চলাচলের জন্য করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সচিব ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বুলবুল আহমেদ এসব তথ্য কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরো জানান, করোনাভাইরাস একটি সংক্রামক রোগ। বাতাস, হাঁচি-কাশি ও গণসমাগমসহ বিভিন্নভাবে এ ভাইরাসটি মানবদেহে প্রবেশ করতে পারে। তাই নিজের নিরাপত্তার পাশাপাশি পরিবার-পরিজনদের সুরক্ষায় সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেন তিনি। জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিতে এবং আইন ও নিয়মনীতি মেনে চলতে বুধবার বিকাল থেকে ভৈরবে সেনাবাহিনী ও পুলিশ মাঠে নেমেছে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুবনা ফারজানা জানান, করোনাভাইরাসের বিস্তার প্রতিরোধে আতংকিত না হয়ে সচেতনা বৃদ্ধি অত্যন্ত জরুরি। সারা বিশ্বব্যাপী ভাইরাসটির বিস্তার হওয়ায় বিদেশফেরত সবাইকে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী কোয়ারেন্টিন পর্ব সম্পন্ন করতে হবে।

এছাড়াও পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত সব ধরনের রাজনৈতিক মিটিং-মিছিল, সভা-সেমিনার, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, সামাজিক অনুষ্ঠানসহ সব ধরনের গণজমায়েত থেকে বিরত থাকতে হবে এবং সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কুল-কলেজ, মাদরাসা-এতিমখানা ও কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

নির্দেশনা অমান্য করা হলে কঠোর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান ইউএনও লুবনা ফারজানা। পাশাপাশি বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা