kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

চট্টগ্রাম ইপিজেড থেকে আরও আট হাজার পিপিই ঢাকায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২৬ মার্চ, ২০২০ ২২:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম ইপিজেড থেকে আরও আট হাজার পিপিই ঢাকায়

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় আরও আট হাজার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) তৈরি করে ঢাকায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠিয়েছে চট্টগ্রামের পোশাক কারখানা স্মার্ট জ্যাকেট লিমিটেড। বুধবার এসব পিপিই এর চালান চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার স্মার্ট জ্যাকেট তাদের তৈরি ৫০ হাজার পিপিই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠিয়েছিল।

জানা যায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় ঔষধালয় স্মার্ট গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান স্মার্ট জ্যাকেট লিমিটেডকে এক লাখ পিপিই তৈরির কার্যাদেশ দিয়েছে। করোনা রোগীদের চিকিৎসায় জড়িত ডাক্তার, নার্স এবং সেবাদানকারীদের জন্য এই পিপিই ব্যবহার হবে বলে কার্যাদেশে বলা হয়েছে। ৭৩০ শ্রমিক পিপিই তৈরির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ১৩ টি লাইনের আলট্রাসনিক মেশিনে পিপিইগুলো তৈরি করা হচ্ছে। কোনো ধরনের সেলাই ছাড়াই তিনটি রঙের পিপিই তৈরি হচ্ছে, যেগুলোপানি ও বায়ূ প্রতিরোধক।

স্মার্ট জ্যাকেটের নির্বাহী পরিচালক বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠানের ১৩০০ শ্রমিক নিয়মিত কাজ করে এ পর্যন্ত ৫৮ হাজার পিপিই বানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে দিয়েছে। মোট এক লাখের অর্ডার আছে। বাকিগুলো তৈরির কাজ চলছে।

তিনি বলেন, বর্তমানে আমাদের কাছে যে কাঁচামাল রয়েছে তার দিয়ে আরও দেড় লাখ পিপিই তৈরি করা সম্ভব। বুয়েট, আইডিসিআর ছাড়াও ৭ থেকে ৮ মন্ত্রণালয় পরীক্ষা শেষে তাদের উৎপাদিত পিপিই গুণগত মান সম্পর্কে সনদ দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

স্মার্ট জ্যাকেট কর্তৃপক্ষ জানায়, আমেরিকার একটি প্রতিষ্ঠানের বুকিং বাতিল করে কারখানাটি বাংলাদেশের ডাক্তারদের সুরক্ষার জন্য তৈরি করছে এক লাখ পিস পিপিই। আমেরিকান ক্রেতা প্রতিষ্ঠান 'উডব্রিজ' এর জন্য গত ৫ বছর ধরে পিপিই তৈরি করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। নায়াগ্রা জলপ্রপাত দেখতে আসা পর্যটকদের জন্য এই পিপিই ব্যবহার করে থাকে। প্রতিমাসে ৩ থেকে ৪ লাখ পিপিই অর্ডার আগামী ২০২৩ সাল পর্যন্ত বুকিং রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা