kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ চৈত্র ১৪২৬। ৩১ মার্চ ২০২০। ৫ শাবান ১৪৪১

গোবিন্দগঞ্জে পূর্ব শত্রুতায় শেষ ফসলের ক্ষেত

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

২৬ মার্চ, ২০২০ ২০:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোবিন্দগঞ্জে পূর্ব শত্রুতায় শেষ ফসলের ক্ষেত

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পূর্বশত্রুতার জের ধরে রাতের আঁধারে ধানের জমিতে ক্ষতিকর রাসায়নিক ছিটিয়ে  রোপিত বোরোধান বিনষ্ট করেছে দুবৃর্ত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার তালুককানুপুর ইউনিয়নের দামোদরপুর গ্রামে।

অভিযোগে জানা গেছে, ওই গ্রামের মৃত আকবর আলী সরকারের ছেলে রবিউল করিম রেজভীর সাথে একই গ্রামের মৃত হবিবর রহমানের ছেলে ইমরানুর রহমান বাবুর সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছে। কয়েকবার মামলা-পাল্টা মামলাও হয়েছে। এরই একপর্যায়ে ক’দিন আগে রবিউল করিম রেজভীর পৈত্রিকসূত্রে পাওয়া ৭৩ শতাংশ জমিতে রোপনকরা বোরো ধানের চারাগাছে রাতের আঁধারে কে বা কারা ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্য প্রয়োগ করে। ফলে ইতিমধ্যে জমির প্রায় আশিভাগ ধানগাছ পুড়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে রবিউল করিম রেজভী জানান, ১৯৪৮ সালে তার বাবা একই এলাকার যোগেশ চন্দ্র বর্মনের কাছ থেকে ৯৩৯ দাগে ৭৩ শতাংশ এবং ৮০৮ দাগে ২০ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। যা ১৯৬২ সালে তার বাবার নামে রেকর্ড হয়। বাবা মারা যাওয়ার পর তিনি জমি দুটি ভোগ করছেন। কিন্ত একই এলাকার মৃত হবিবর রহমানের ছেলে ইমরানুর রহমান বাবু ওই জমি নিজের দাবি করে বিবাদ সৃষ্টি করেছেন। এ নিয়ে বেশ কয়েকটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

তিনি বলেন, জমিতে রাসায়নিক প্রয়োগে রোপন করা বোরো ধান নষ্ট করে দেওয়ার ব্যাপারে সন্দেহভাজনদের ব্যাপার উল্লেখ করে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। এবং এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি এ কে এম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ক্ষতিকর রাসায়নিক প্রয়োগের মাধ্যমে জমির ধানগাছ নষ্ট করে দেওয়ার বিষয়টি পুলিশ অবহিত হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা