kalerkantho

সোমবার  । ১৬ চৈত্র ১৪২৬। ৩০ মার্চ ২০২০। ৪ শাবান ১৪৪১

মঠবাড়িয়ায় গৃহবধূ ও যুবকের অপমৃত্যু

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

২৬ মার্চ, ২০২০ ১৬:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মঠবাড়িয়ায় গৃহবধূ ও যুবকের অপমৃত্যু

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বিলকিস বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধূ ও এমাদুল হক (৩০) নামে এক মাছচাষির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, আজ বৃহস্পতিবার ওই গৃহবধূ ও যুবকের লাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে উদ্ধার করা হয়। গৃহবধূ বিলকিস মানসিক কীটনাশক পানে আত্মহত্যা ও মাছচাষি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিহত হন। 

নিহত গৃহবধূ বিলকিস উপজেলার আমড়া গাছিয়া ইউনিয়নের মানিকখালী গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী নুরুল আমিন ফরাজির স্ত্রী। সে এক সন্তানের জননী। স্বামীর পরিবারের দাবি নিহত গৃহবধূ দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ ছিল।  

থানা ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বৃস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে স্বামীর ঘরে পরিবারের লোকজনের অগোচরে গৃহবধূ বিলকিস কীটনাশক পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে পরিবারের লোকজন গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

অপরদিকে উপজেলার বেতমোড় করিমগঞ্জ গ্রামের মৃত আবদুস সালাম মিয়ার ছেলে মাছচাষি মো. এমাদুল হক আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাড়িসংলগ্ন মাছের ঘেরে বিদ্যুৎচালিত মোটর দিয়ে সরবরাহ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত মাছচাষির লাশ পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকা ও তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় পৃথক দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা