kalerkantho

সোমবার । ২৩ চৈত্র ১৪২৬। ৬ এপ্রিল ২০২০। ১১ শাবান ১৪৪১

বিয়েতে রাজী না হওয়ার জের

আড়াইহাজারে তরুণীর চুল কেটে দেওয়া সেই বখাটে গ্রেপ্তার হয়নি

আড়াইহাজার ( নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৫ মার্চ, ২০২০ ১০:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আড়াইহাজারে তরুণীর চুল কেটে দেওয়া সেই বখাটে গ্রেপ্তার হয়নি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বিয়েতে রাজী না হওয়ায় এক তরুণীর চুল কেটে দেওয়া সেই বখাটে আল আমিন (২৫) ঘটনার তিন দিন অতিবাহিত হলেও গ্রেফতার হয়নি। উল্টো মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ভয়ভীতি দেখাচ্ছে আসামী পক্ষ।

জানা গেছে, আড়াইহাজার পৌর সভার চামুরকান্দী গ্রামের ফয়েজ খন্দকারের বখাটে ছেলে আল আমিন ৬ মাস ধরে কামরানীরচর গ্রামের বিল্লালের মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তু ওই তরুণী তাতে রাজী হয়নি। এতে তরুণীর ওপর ক্ষিপ্ত ছিল আল আমিন। শনিবার সন্ধ্যায় তরুণী বরপা থেকে বাড়ী ফেরার পথে কৃষ্ণপুরা গ্রামের কাছে এলে তাকে ৪-৫ জন যুবক রাস্তা থেকে তুলে আল আমিন এর বাড়ীতে নিয়ে যায় ।

সেখানে নিয়ে তাকে বিয়ে করার জন্য তাকে চাপাচাপি করে। এতে রাজী না হওয়ায় আল আমিন ও তার লোকজন তার চুল কেটে দেয় এবং হাতে, গালে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছ্যাঁকা দেয়। সেই সঙ্গে তাকে মারপিও করে। এর পর তাকে মেরে ফেলোর জন্য বাড়ীর পাশে চকে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে তরুণীর মা মোমেলা বেগম বাদী হয়ে রোববার আড়াইহাজার থানায় আলআমিন, সহযোগি কামালের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২ জনকে আসামী একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের ৩দিন অতিবাহিত হলে ও মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত আসামী গ্রেফতার হয়নি।

নির্যাতিত তরুণী অভিযোগ করে বলেন, আলআমিন আমাকে প্রতিনিয়ত মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।

মামলার বাদী তরুণীর মা জানান, আমরা গরীব মানুষ হওয়ায় মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মঞ্জুর হোসেন জানান, আমরা আসামী গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করি দ্রুত আসামী গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হব।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা