kalerkantho

শুক্রবার । ২০ চৈত্র ১৪২৬। ৩ এপ্রিল ২০২০। ৮ শাবান ১৪৪১

জয় বাংলা শ্লোগান দেশের বড় সম্পদ : প্রতিমন্ত্রী খালিদ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:৫৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জয় বাংলা শ্লোগান দেশের বড় সম্পদ : প্রতিমন্ত্রী খালিদ

জয় বাংলার শ্লোগান দেশের বড় সম্পদ বলে মন্তব্য করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। আজ বুধবার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধর্মপুর ডিডিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, জয় বাংলার শ্লোগান দিয়ে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় যে দুইজন এমপি হয়েছিল আজ তারা নেই। এই উপজেলা একটি জামায়াত অধ্যুষিত এলাকা। জামায়াতের সাবেক এমপি মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিত ঘোড়ামারা আজিজ ও তার সহযোগিরা এই উপজেলার অনেক নেতা-কর্মীকে মেরে ফেলেছে। অপসংস্কৃতির আড়াল থেকে এই উপজেলাকে মুক্ত করতে হবে। সে জন্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বেশি বেশি করতে হবে। আয়োজক কমিটির অব্যবস্থাপনার কারণে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের আমন্ত্রণ না করায় জয় বাংলার শ্লোগান শোনা যায়নি। সে কারণে দুঃখ প্রকাশ করেন এই আওয়ামী লীগ নেতা। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রয়াত এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ও গোলাম মোস্তফা আহমেদ দীর্ঘদিন রাজনীতি করে এই উপজেলাকে সুসংগঠিত করেছিল। কিন্তু তারা অল্প সময়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। 

এ সময় তিনি এই উপজেলায় একটি কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী, কালচারাল সেন্টার, ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংস্কৃতিক উপকরণ প্রদানের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। এছাড়া নদী ভাঙন রোধ ও হরিপুর-চিলমারী তিস্তা সেতুর নির্মাণ কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে দাবি জানানোর প্রতিশ্রুতিও দেন। 

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির স্থানীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম সরকার, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার কাজী লুতফুল হাসান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহমুদ হোসেন মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল আলম রেজা, শ্রীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান মঞ্জু মিয়া প্রমুখ।

পরে স্কুলের পক্ষ হতে শিক্ষাথীদের একটি করে ক্রেষ্ট ও এমপি ব্যারিস্টার শামীম হায়দারের পক্ষ হতে প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে বৃত্তি প্রদান করা হয়। বিদ্যালয়ের ১৯ জন শিক্ষার্থীকে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়ছে।

এ ছাড়াও এদিন সদর উপজেলার দারিয়াপুর সারথী থিয়েটারের ভবন ও মঞ্চ নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন প্রতিমন্ত্রী। তা ছাড়াও জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তিনি। সবশেষ সন্ধ্যায় নাট্য সংগঠন ‘পদক্ষেপ থিয়েটার কর্তৃক আয়োজিত নাট্যোৎসব এবং মঞ্চের উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা