kalerkantho

সোমবার  । ১৬ চৈত্র ১৪২৬। ৩০ মার্চ ২০২০। ৪ শাবান ১৪৪১

সুনামগঞ্জে কচুরিপানা নিয়ে সংঘর্ষের ভুয়া সংবাদে নিন্দা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জে কচুরিপানা নিয়ে সংঘর্ষের ভুয়া সংবাদে নিন্দা

সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার উপ্তিরপাড় গ্রামে কচুরিপানা নিয়ে সংঘর্ষের ভুয়া ছবি দিয়ে বিভিন্ন অনলাইনে ভুয়া সংবাদ প্রকাশ করার ঘটনায় সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদের নিন্দা জানিয়ে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

এলাকাবাসী জানান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার উপ্তিরপাড়া গ্রামে গত ২৩ জানুয়ারি সকালে আমীর আলী ও তখলিছ আলী গংয়ের মধ্যে পূর্ববিরোধ নিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ১০ ব্যক্তিকে আটক করে আদালতে চালান দেয়। ওই ঘটনা নিয়ে গত ২০ ফেব্রুয়ারি ও ২১ ফেব্রুয়ারি যাচাই-বাছাই না করেই দক্ষিণ সুনামগঞ্জের উপ্তিরপাড় গ্রামে ‘কচুরিপানা নিয়ে দুই পক্ষের তুমুল মারামারি’ শিরোনামে কিছু অনলাইন ভুয়া সংবাদ প্রকাশ করে। 

দেশ-বিদেশের অনেকেই তা শেয়ার করেন। উল্লেখ্য, ওই এলাকা পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের নির্বাচনী এলাকা। তাঁর সাম্প্রতিক কচুরিপানা নিয়ে গবেষণার বিষয়টিও কয়েকটি গণমাধ্যমে ভুলভাবে প্রচার করা হলে দেশব্যাপী আলোচনার জন্ম দেয়। পরে সাংবাদিকরা এমন ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন আহমদ বলেন, ‘অনেক অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় নিউজটি আমি পড়েছি। আমি এ উপজেলার বাসিন্দা। এ ধরনের মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করার আগে নিজ উপজেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের কাছ থেকে তথ্য নেওয়া প্রয়োজন ছিল। বিশেষ করে পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করাও প্রয়োজন ছিল। অধিকাংশ নিউজ পোর্টাল নিজেদের ইচ্ছামতো কপি কাট করেছে। সংবাদ যাচাই না করে প্রকাশ করা অতি নিন্দনীয় কাজ। এ ধরনের কোনো ঘটনা আমাদের এলাকায় ঘটেনি।’

উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘গত মঙ্গলবার আমার ইউনিয়নের অধীনে উপ্তিরপাড় সাকিনে কোনো মারপিটের ঘটনা ঘটেনি। এটা একটা বানোয়াট সংবাদ।’

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী জানান, গত মঙ্গলবার এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি। গত মাসে উপ্তিরপাড়ে জলমহাল নিয়ে মারামারি হয়েছিল। এটি আসলে ভুয়া সংবাদ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা