kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ চৈত্র ১৪২৬। ৭ এপ্রিল ২০২০। ১২ শাবান ১৪৪১

দুই পুলিশ আহত, আটক ৪

বাঘায় শ্রমিক নেতার বাড়ি থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ মাদক উদ্ধার

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৮:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাঘায় শ্রমিক নেতার বাড়ি থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ মাদক উদ্ধার

রাজশাহীর বাঘায় আলতাব হোসেন নামে এক শ্রমিক নেতার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে দুটি দেশীয় অস্ত্র (হাসুয়া)সহ ২২ পিস ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সাথে আলতাব হোসেনের দুই ছেলে বিপ্লব এবং বাবুসহ অপর এক মাদক সেবনকারি মেরিন হোসেনকেও আটক করা হয়েছে। এ সময় পুলিশের সাথে উভয় পক্ষের ধস্তাধস্তির ঘটনায় দুই পুলিশ আহত হন। পরে তাদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হয়। আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ মিলিকবাঘা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বাঘা থানা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, শুক্রবার দুপুর ১২টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার দক্ষিণ মিলিক বাঘা গ্রামে অবস্থিত বাঘা উপজেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আলতাব হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালান বাঘা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) লুৎফর রহমান ও উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) মাসুদ ইকবাল ও রেজাউল করিম। এ সময় আলতাব হোসেন (৬০) ও তার ছেলে বিপ্লব (৩২) এবং বাবুর (২২) ঘর তল্লাশি করে পুলিশ দুটি দেশীয় অস্ত্র (৪০ ইঞ্চি) হাসুয়াসহ ২২ পিস ফেনসিডিল, ৪টি মোবাইল ফোন এবং ১ লাখ ৩০ হাজার নগদ টাকা উদ্ধার করেন। সেই সাথে মাদক সেবন করতে আসা পাশ্ববর্তী চন্ডিপুর হিজলপল্লী গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে মেরিন আটক করা হয়। তার ব্যবহৃত একটি এ্যাপাসি মোটরসাইকেলও জব্দ করা হয়। 

জানা গেছে, পরে এ ঘটনায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন এসআই লুৎফর রহমান। মামলায় মাদক, অস্ত্র এবং সরকারী কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে তিনটি ধারা সম্পৃক্ত করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে মামলার বাদী লুৎফর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অনেক দিন থেকে শুনে আসছি শ্রমিক নেতা আলতাব হোসেনের বাড়ি থেকে মাদক বেচা-কেনা হয়ে থাকে। কিন্তু প্রমাণের অভাবে অভিযান দেওয়া সম্ভব হয়নি। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে নির্ভরযোগ্য তথ্যের মাধ্যমে খবর পেয়ে সেই বাড়িতে অভিযান চালাই। এ সময় তারা আমাদের ওপর আক্রমণ করলে দুজন পুলিশ আহত হন। পরে থানায় ফোন করে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসি।

এ ব্যাপারে বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, অপরাধী যেই হোক তার কোনো ছাড় নাই। এ ঘটনায় মাদক, অস্ত্র এবং সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে তিনটি ধারা সম্পৃক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপরাধীদের আগামীকাল শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা