kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

গফরগাঁওয়ে পেনশনপ্রাপ্তরা পাবেন ইএফটি সেবা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গফরগাঁওয়ে পেনশনপ্রাপ্তরা পাবেন ইএফটি সেবা

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (ইএফটি) সেবা চালু করায় প্রায় দুই হাজার অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী অমানবিক কষ্টের হাত থেকে রক্ষা পাবেন এবং এই পদ্ধতিতে প্রতিমাসে পেনশনের টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। উপজেলা হিসাব বিভাগ এ ডিজিটাল সেবা চালু করায় পেনশনপ্রাপ্তরা নির্দিষ্ট ইএফটি ফরম পূরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ জমা দিলে বাংলাদেশের যেকোনো স্থানে অনলাইন ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

জানা যায়, উপজেলায় প্রায় দুই হাজার (১৯১৫ জন) অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক, স্বাস্থ্য সেবাকর্মী, বিডিআরসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। তাদের পেনশনের টাকা উত্তোলনের জন্য প্রতিমাসে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসে ও ব্যাংকের নির্দিষ্ট শাখায় দীর্ঘ সময় অপেক্ষা ও চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করে বার্ধক্যজনিত কারণে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন বা চলাচল করতে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হন। এ অবস্থায় উপজেলা হিসাব বিভাগ ইএফটি সেবা চালু করেছেন। এ পদ্ধতিতে পেনশনপ্রাপ্ত ব্যক্তি বা তার নমিনি নির্দিষ্ট ইএফটি ফরম পূরণ করে যেকোনো অনলাইন ব্যাংকের একাউন্ট নম্বর, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসে জমা দিলে একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়ে যাবে। এরপর থেকে পেনশন উত্তোলনের জন্য উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসের বারান্দায় আর অপেক্ষা করতে হবে না। পেনশনপ্রাপ্ত ব্যক্তি বাংলাদেশের যেকোনো স্থানে তার অনলাইন ব্যাংক একাউন্ট থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

গফরগাঁও আলতাফ গোলন্দাজ কলেজের প্রভাষক গোলাম মোহাম্মদ ফারুকী বলেন, এটাই হলো শেখ হাসিনার সরকারের ডিজিটাল উন্নয়ন। এতে বয়স্ক মানুষগুলো অমানবিক কষ্টের হাত থেকে রক্ষা পাবে।

উপজেলা হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মঞ্জুর আহসান বলেন, আমাদের এখানে পেনশনপ্রাপ্তের সংখ্যা বেশী হওয়ায় ভিড় লেগে যায়। সব ঠিকঠাক করে দিতে দেরি হয়। এ অবস্থায় বয়সজনিত কারণে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। অনেক প্রবীণ ব্যক্তি দাঁড়াতেও পারেন না। পেনশনারদের কষ্ট লাঘব করতেই এই ডিজিটাল সেবা চালু করা হয়েছে। ইতিমধ্যে উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ইএফটি পদ্ধতিতে বেতন উত্তোলন করছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা