kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

হরিরামপুর উপজেলা

মৎস্য কর্মকর্তাকে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্ত

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১০:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মৎস্য কর্মকর্তাকে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্ত

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা নজরুল ইসলামকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে উপজেলা চেয়ারম্যান দেওয়ান সাইদুর রহমান সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন।

মানিকগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক ফৌজিয়া খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান গত রবিবার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে সাইদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদ আইন, ১৯৯৮ (সংশোধন) ২০১১-এর ১৩-ঘ ধারা অনুসারে তার বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়। প্যানেল চেয়ারম্যান -১কে উপজেলা পরিষদের কাযক্রম পরিচালনার জন্য পরিষদের আর্থিক ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি, মৎস্য কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। জিডিতে তিনি উল্লেখ করেন, ৪ ফেব্রুয়ারি বেলা পৌনে একটার দিকে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তাঁর কার্যালয়ে দাপ্তরিক কাজ করাকালে চেয়ারম্যানের নির্দেশে তাঁর ক্যাডার বাহিনীর সদস্য পিন্টু, আমির হামজা, মো. আজম ও মো. শুভসহ অজ্ঞাত সাত-আটজন তার কার্যালয় কক্ষে প্রবেশ করেন। তাঁরা বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান তাঁকে যেতে বলেছেন। কাজ শেষ করে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে দেখা করবেন বলে জানানোর পর পরই তারা তাঁকে টেনেহিচড়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভেতরে নিয়ে যান। সেখানে নেওয়ার পর চেয়ারম্যান তার কাছে উপজেলার পরিসংখ্যান বিভাগে গণনাকারী ও সুপারভাইজার পদে নিয়োগের বিষয়ে জানতে চান। তিনি এই কমিটির সদস্য নন, এ বিষয়ে তার কাছে কোন তথ্য নাই বলার পর ওই চেয়ারম্যান তাঁকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এর পর তাঁকে বদলিসহ প্রাণনাশের হুমকি দেন। এই ঘটনায় থানায় জিডি করা ছাড়াও জেলা প্রশাসকসহ মৎস্য বিভাগের ডিজি‘র কাছে অভিযোগ করেছিলেন।

সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার বিষয়ে হরিরামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দেওয়ান সাইদুর রহমান বলেন তিনি নির্দোষ। তিনি আইনী লড়াই করবেন। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা-বানোয়াট উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে তাঁকে সংশোধন হতে বলেছেন মাত্র।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা