kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

ফুলবাড়িয়ায় ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ধর্ষক গ্রেপ্তার

ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফুলবাড়িয়ায় ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ধর্ষক গ্রেপ্তার

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় মাদরাসা ও স্কুলের দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তাদের বয়স ১১-১৩ বছর। মাদরাসা শিক্ষার্থী বাসের হেলপার দ্বারা ও স্কুলছাত্রী দুঃসম্পর্কের দাদার হাতে ধর্ষণের শিকার হয়। ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে আজ রবিবার লম্পট ধর্ষক বাবুল হোসেন (৩২) ও আব্দুল খালেককে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, ফুলবাড়িয়া পৌরসভার গৌরীপুর এলাকায় মুধু মিয়ার পুত্র বাসের হেলপার বাবুল হোসেন শুক্রবার বিকেলে পাশের বাড়ির মাদরাসা ছাত্রীকে তার শিশু সন্তান দেখানোর কথা বলে কৌশলে ঘরে নিয়ে হাতমুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। মেয়েটি কান্নাকাটি করে বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের কাছে সব বলে দেয়। পরদিন শনিবার সন্ধ্যায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ফুলবাড়িয়া থানায় অভিযোগ দিলে এসআই রফিকুল ইসলাম রবিবার ভোরে বাবুলকে গ্রেপ্তার করে।

এদিকে আছিম-পাটুলি ইউনিয়নের রামনগড় গ্রামে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে একই গ্রামের দুঃসম্পর্কের দাদা আ. খালেক আখক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। খালেক রামনগড় গ্রামের মৃত সাবান আলীর পুত্র। গত বৃহস্পতিবার থেকে চঞ্চল প্রকৃতির শিশুটি হঠাৎ কম কথা বলা, বাড়িতে ছোটাছুটি না করা ও ঘরে শুয়ে থাকায় মায়ের সন্দেহ হয়। ঘটনার দুদিন পার হলেও শিশুটি তার মায়ের কাছে কিছু না বললে শনিবার তার দাদীর কাছে ধর্ষণের ঘটনাটি বলে দেয়। রবিবার ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ফুলবাড়িয়া থানায় অভিযোগ দিলে দুপুরে এসআই আ. মান্নান ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেন।

ফুলবাড়িয়া থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার বলেন, দুটি ধর্ষণের ঘটনায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ধর্ষকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা