kalerkantho

বুধবার । ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সোনারগাঁয়ে দলিল লেখক বরখাস্ত, সাব রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০৯:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোনারগাঁয়ে দলিল লেখক বরখাস্ত, সাব রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা

দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভূমি নিবন্ধন করার অভিযোগে প্রমাণিত হওয়ায় নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে সাব রেজিস্ট্রার অফিসের দলিল লেখককে সাময়িক বরখাস্ত ও সাবেক সাব রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করে উপ মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন) বরাবর চিঠি দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা নিবন্ধক। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার মো. জিয়াউল হক জানান, ভূমির শ্রেণি পরিবর্তন করে দুর্নীতি ও অনিয়ম করে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে দলিল নিবন্ধন করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সোনারগাঁয়ের বৈদ্যেরবাজার সাব রেজিস্ট্রার অফিসের সাবেক সাব রেজিস্ট্রার আবু তাহের মোহাম্মদ মোস্তফার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপ মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন) বরাবর গতকাল সোমবার চিঠি দেওয়া হয়েছে। দলিল লেখক মোহাম্মদ সেলিমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া যে দলিলটি দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে সরকারের ১৫ লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছিল ওই দলিলের গ্রহীতা তাছলিমা আক্তারকে সরকারের নির্ধারিত রাজস্ব ১৫ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চর লাউয়াদী মৌজায় প্রতি শতাংশ নাল জমির মূল্য ৩ লাখ ৩৩ হাজার তিন শত ৩৩ টাকা বাজার মূল্য নির্ধারণ করে সরকার। ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল ৫৪৭২ নম্বর দলিলের গ্রহীতা সোনারগাঁ পৌরসভার সাহাপুর গ্রামের শহীদুল ইসলামের স্ত্রী তাছলিমা আক্তার ওই মৌজায় ৪৮ শতাংশ নাল জমিকে ভিটি শ্রেণি দেখিয়ে দলিল লেখক মোহাম্মদ সেলিম তৎকালীন বৈদ্যারবাজার সাব-রেজিস্ট্রার আবু তাহের মোস্তফার সঙ্গে যোগসাজশে দলিল নিবন্ধন করে সরকারের ১৫ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেন।  

এ ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশন, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও নারায়ণগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রারের বরাবর শিবলী মতিন নামের এক ব্যবসায়ী গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পর নারায়ণগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রারের কার্যালয় থেকে তদন্ত করে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা