kalerkantho

শনিবার । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭। ৮ আগস্ট  ২০২০। ১৭ জিলহজ ১৪৪১

কৌশলে ধর্ষককে পুলিশে দিলেন তরুণী

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

২৬ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কৌশলে ধর্ষককে পুলিশে দিলেন তরুণী

মোবাইলে সর্ম্পক। দেখা করার আকুতি করে বেশ কয়েকদিন দেখা করলেও অনৈতিক সর্ম্পকে রাজী হয়নি প্রেমিকা। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রলোভনে বাড়ির বাইরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে প্রেমিক। এ অবস্থায় সটকে পড়ার চার দিন পর কৌশলে নিজ বাড়িতে ডেকে এনে পুলিশে খবর দিয়ে ধর্ষককে ধরিয়ে দেয় ধর্ষিতা।

এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রাজগাতি ইউনিয়নের বনাটি গাঙাইলপড়া গ্রামে। গতকাল শনিবার মামলার পর আজ রবিবার সকালে ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে ও ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার রাজগাতি ইউনিয়নের গাঙাইল পাড়া গ্রামের আব্দুল ফকিরের ছেলে মো. ছুটন মিয়ার (১৮) সাথে রঙ নাম্বারে মোবাইলে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে পাশের গ্রামের এক তরুণীর (১৮)। দীর্ঘদিন মোবাইলে কথাবার্তা চললে প্রেমিকাকে কাছে পেতে মরিয়া হয়ে উঠে প্রেমিক ছুটন।

তরুণী জানান, তার (প্রেমিক) অনেক আকুতি মিনতির পর বেশ কয়েকদিন দেখা করেন। ওই সময় অনৈতিক সর্ম্পকের প্রস্তাব দিলে বিয়ের আগে সম্ভব নয় বললে বেশ কয়েক দিন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে। এ অবস্থায় গত বুধবার প্রেমিক ছুটন মোবাইল করে বিয়ের কথা বলে তাকে বাড়ির বাহিরে আসতে বলে। এক পর্যায়ে সন্ধ্যার পর বাড়ির সামনে এক জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে। চলে যাওয়ার সময় তরুণী বিয়ের কথা বললে সাফ অস্বীকার করে লাপাত্তা হয়ে যায়।

পরে তরুণী ঘটনাটি কাউকে না বলে শনিবার সকালে নিজেই প্রেমিককে ফোন করে বলেন, বিয়ের প্রয়োজন নেই। তুমি আমার কাছে আসো। এই কথায় ছুটন তার কাছে এলে কৌশলে বাড়ির ভিতরে নিয়ে আটকে পুলিশে খবর দেন। নান্দাইল থানার উপপরিদর্শক তালেব হোসেন অভিযুক্ত ধর্ষককে আটক করে থানায় আনেন। পরে মামলা নিয়ে তাকে জেলহাজাতে প্রেরণ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা