kalerkantho

শনিবার । ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

চোর সন্দেহে অভয়নগরে ফের পিটিয়ে হত্যা

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২০ ১৮:৩২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চোর সন্দেহে অভয়নগরে ফের পিটিয়ে হত্যা

যশোরের অভয়নগরে ভ্যান চোর সন্দেহে ইলিয়াস শেখ (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার ভোর রাতে উপজেলার শুভরাড়া ইউনিয়নের মাঠপাড়া এলাকায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত ইলিয়াস শেখ শুভরাড়া গ্রামের হাকিম শেখের ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, কয়েক মাস ধরে তাদের এলাকায় ভ্যান চুরির ঘটনা ঘটছে। যে কারণে তারা রাতে টহলের ব্যবস্থা করেন। শুক্রবার ভোর রাতে গ্রামের টহল দল হাজী আছাদ ভূঁইয়ার বাড়ির সামনে ছিল। এসময় একটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানসহ ইলিয়াস শেখকে দেখলে তাদের সন্দেহ হয় এবং তাকে আটক করে। পরে টহল দলের সঙ্গে ইলিয়াসের বাকবিতণ্ডা শুরু হলে এলাকাবাসী এগিয়ে আসে এবং পিটুনি দিতে শুরু করে। গণপিটুনির একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়। এসময় ওই ভ্যানে থাকা একটি ব্যাগ থেকে ভ্যানের তালা খোলা ও ভাঙার সরঞ্জামাদি পাওয়া যায়। যা পরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, এভাবে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়াটা বেআইনি কাজ। এই হত্যাকাণ্ডে সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক না কেন তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভয়নগরে গত ১৫ দিনে চোর ও ছিনতাইকারী সন্দেহে গণপিটুনিতে পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। এই বিষয়ে ওসি বলেন, এরই মধ্যে গণপিটুনিতে সুন্দলী ইউনিয়নে মোটরসাইকেল ছিনতাইকারী সন্দেহে একজন ও প্রেমবাগে গরু চোর সন্দেহে তিন জনের মৃত্যুর ঘটনায় পৃথকভাবে হত্যা মামলা হয়েছে। শুভরাড়ার ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হবে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম জানান, অভয়নগর থানার শুভরাড়া ইউনিয়নের মাঠপাড়ায় ভ্যান চোর সন্দেহে ইলিয়াস শেখকে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। গণপিটুনি দিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গত ৪ জানুয়ারি শনিবার রাতে উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়নের সুন্দলী বাজারে মোটরসাইকেল ছিনতাইকালে গণপিটুনিতে উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের জিয়াডাঙ্গা গ্রামের সুবহান বিশ্বাসের ছেলে মামুন রশীদ নিহত হন। এরপর গত ১৩ জানুয়ারি সোমবার ভোররাতে প্রেমবাগ ইউনিয়নে প্রেমবাগ গ্রামে গরু চোর সন্দেহে বাগেরহাট ফকিরহাটের কাটাখালি গ্রামের সোহেল, শওকত ও জনি নামের তিন জনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পৃথক ঘটনায় অভয়নগর থানা পুলিশ বাদী হয়ে চার থেকে পাঁচশ জনকে অজ্ঞাত আসামি দেখিয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা