kalerkantho

শনিবার । ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

‘ধন্যবাদ আবেদ ভাই’

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ২০:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘ধন্যবাদ আবেদ ভাই’

ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদ স্মরনে ‘ধন্যবাদ আবেদ ভাই’ শিরোনামে হবিগঞ্জে এক শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে ব্র্যাকের উদ্যোগে এই সভার আয়োজন করা হয়।

ব্র্যাক হবিগঞ্জ জেলার সমন্বয়কারী আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলুল হক, সরকারি বৃন্দাবন কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক শাহনাজ পারভীন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জল, সরকারি মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক শোয়েবুর রহমান ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাহবুবুল আলম।

আলোচকরা বলেন, ফসলে হাসান আবেদ ছিলেন দরিদ্র মানুষের অতি আপনজন। মানুষ ধনী ও দরিদ্রের মধ্যে যে বৈষম্য সৃষ্টি করে তা তিনি দূর করার চেষ্টা করেছেন। তিনি দরিদ্র মানুষকে আত্মনির্ভরশীল ও স্বাবলম্বী করার জন্য আজীবন কাজ করেন। তাঁর স্বপ্ন ছিল ২০৩০ সালের মধ্যে ব্র্যাককে ২৫০ বিলিয়ন মানুষের কাছে নিয়ে যাওয়ার। ব্র্যাক দেশের গন্ডি ছেড়ে বিদেশে গেলেও তিঁনি এলাকার কথা ভোলেননি। ব্র্যাকের যত কর্মসূচি গ্রহণ করা হত তার সবকিছুতেই থাকত হবিগঞ্জ ও বানিয়াচংয়ের নাম।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, স্যার ফজলে হাসান আবেদের জন্য হবিগঞ্জ জেলার গৌরব বৃদ্ধি পায়। তিনি একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নিলেও কাজ করতেন সাধারন লোকের জন্য। দারিদ্র বিমোচন, শিক্ষার আলো ছড়ানো এবং নারীর উন্নয়নসহ তার বিভিন্ন কার্যক্রম ছিল ব্যাতিক্রম এবং প্রশংসনীয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ফজলে হাসান আবেদ স্মরণে দাড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে একটি প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।
গত ২০ ডিসেম্বর স্যার ফজলে হাসান আবেদ ৮৩ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা