kalerkantho

সোমবার । ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ ফাল্গুন ১৪২৬। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

৯৯৯ ফোন, বখাটের হাত থেকে স্কুলছাত্রীর রক্ষা

ঝালকাঠি ও রাজাপুর প্রতিনিধি   

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ১৭:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৯৯৯ ফোন, বখাটের হাত থেকে স্কুলছাত্রীর রক্ষা

ঝালকাঠির রাজাপুরে ৯৯৯ এ ফোন করে এক বখাটের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে এসএসসি পরিক্ষার্থী ও তাঁর পরিবার। পুলিশ ইভটিজিংয়ের অভিযোগে নাঈম কাজী (১৯) নামে এক যুবককে আটক করেছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার সাতুরিয়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। নাঈম ওই গ্রামের ফিরোজ কাজীর ছেলে। 

পরীক্ষার্থীর বড় ভাই জানায়, তাঁর বোন সাতুরিয়া এমএম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছরের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। সে বিদ্যালয়ে যাওয়ার আসার সময় দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী বখাটে নাঈম তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। মঙ্গলবার বিদ্যালয়ের ক্লাস শেষ করে বাড়ি ফিরছিল সে। বাড়ির কাছাকাছি আসলে বখাটে নাঈম রাস্তায় দাঁড়িয়ে তাকে জড়িয়ে ধরে। এসময় তাঁর বোন চিৎকার দিলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। এ সময় নাঈম সবাইকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি দেয়। এ ঘটনা তাঁর মা বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে জানিয়ে বাড়ি ফেরার সময় বখাটে নাঈম পথরোধ করে অকথ্য ভাষায় গালাগালি দিয়ে নানা ধরণের হুমকি দেয়। পরীক্ষার্থীর পরিবারটি নিরুপায় হয়ে পুলিশের ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে রাজাপুর থানা পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। 

এ ব্যাপারে সাতুরিয়া এমএম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফজলুল হক আকন বলেন, ঘটনাটি আমি লোকমুখে শুনেছি। এ ঘটনায় পরিক্ষার্থীর পরিবারের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়ে রাজাপুর থানা পুলিশকে অবহিত করেছি। 

এ ব্যাপারে রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ইভটিজিংয়ের ঘটনায় মামলা করা হয়েছে (মামলা নম্বর-১৫)। এক আসামি গ্রেপ্তার করেছি। ৯৯৯ এ ফোন করায় আমরা তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা